fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ভগবানপুরে দাদা বনাম দিদির লড়াই, এলাকায় উওেজনা

মিলন পণ্ডা, (পূর্ব মেদিনীপুর): পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ভগবানপুর বিধানসভা এলাকায় দাদা বনাম দিদির লড়াই। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। এটা বিজেপির চক্রান্ত বলে দাবি করেছেন। পুরোপুরি অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি। তাদের দাবি, দাদা বনাম দিদি অনুগামী লড়াই। ঘটনার প্রকাশ্যের আসার পরে এলাকায় রাজনৈতিক উওেজনা ছড়িয়েছে।

 

তৃণমূল কংগ্রেসের লাগানো ফ্লেক্স কারসাজি করার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালো ভগবানপুর বিধানসভা একাধিক এলাকায়। ভগবানপুর বিধানসভার বিধায়ক অর্ধেন্দুশেখর মাইতির নামে আসন্ন বড়দিন ও ইংরেজী নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি ও দলীয় জোড়াফুল প্রতীক সম্বলিত বেশকিছু পোস্টার লাগানো হয় ভগবানপুর সিমুলিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের ভীমেশ্বরী বাজার এলাকায়।দলীয় নির্দেশে প্রচারকের নাম হিসেবে থাকে ভগবানপুর ১ ব্লক যুব তৃণমূল কংগ্রেসের নব নিযুক্ত সহ-সভাপতি শুভ্রকান্তি বায়েনের নামে কর্তৃক প্রচারিত।

 

দেখা যাচ্ছে, বেশিরভাগ ফ্লেক্স শুভ্রকান্তি বায়েনের নামের ওপর শিমুলিয়া তৃণমূল কংগ্রেস লেখা পোস্টার লিখে দিয়েছেন কেউ বা কারা। তা নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানোওর। ঘটনার পেছনে বিজেপির হাত রয়েছে বলে মনে করছেন তৃণমূল কংগ্রেসের একাংশ।যদিও তা মানতে রাজী নয় দলের অপর অংশ।তৃণমূল কংগ্রেসের ওই অংশ মনে করছেন, দলেরই কিছু লোকজন ব্লক যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সহ-সভাপতি হিসেবে শুভ্রকান্তি বায়েনকে মেনে নিতে পারছেন না। তাদের এই কাজকর্ম পছন্দ নয়।

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ভগবানপুর ১ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অভিজিৎ দাস বলেন তৃণমূল কংগ্রেসের মধ্যে অভ্যন্তরীণ কোন্দল লাগানোর জন্যই রাতের অন্ধকারে বিজেপি কর্মীরা এই কাজ করেছে। তৃণমূল কংগ্রেসে মধ্যে কোন বিভেদ নেই। যদিও অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেছে বিজেপি। ভগবানপুর ১ পশ্চিম মন্ডলের বিজেপি সভাপতি স্বপন প্রধান বলেন দাদার অনুগামী ও দিদির অনুগামী। তৃণমূল কংগ্রেস এখন দু’ভাগে বিভক্ত। এই ঘটনা তারই ফসল।এর সঙ্গে বিজেপি কোন সম্পর্ক নেই। বিজেপি এই রাজনৈতিক সংস্কৃতিতে বিশ্বাসী নয়।

Related Articles

Back to top button
Close