fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

গৃহবধূর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারকে ঘিরে এলাকায় গুঞ্জন, তদন্তে পুলিশ

মিলন পণ্ডা, ময়না (পূর্ব মেদিনীপুর): পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ময়না থানার আনুখা গ্রামের এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার এলাকায় গুঞ্জন ছড়িয়েছে। খুন নাকি আত্মঘাতী তা নিয়ে এলাকায় শুরু হয়েছে ধন্দ। বুধবার সকালে বাড়ি সংলগ্ন গাছ থেকে পুলিশ ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে আসে। পুলিশ জানিয়েছে মৃত গৃহবধু মালবিকা বর্মণ (৩৩)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে প্রায় দশ বছর আগে গ্রামের কার্তিক বর্মনের সঙ্গে মালবিকা বিয়ে হয়। তাদের একটি কন্যা সন্তান ও পুত্র সন্তান জন্মগ্রহন করে। এরপর কার্তিক স্থানীয় এক মহিলা সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কের জড়িয়ে পড়ে। এই ঘটনার জানাজানি হতেই স্বামী ও স্ত্রী মধ্যে বচসা শুরু হয়।

স্থানীয়দের দাবি মঙ্গলবার গভীর রাতে স্বামীর বাড়ি ফেরা নিয়ে স্ত্রী মালবিকা বচসা শুরু করে। এমনকি হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে দুইজন। বুধবার সকালের বাড়ি থেকে চারশো মিটার দুরে গাছে কাপড়ের ফাঁস লাগানো অবস্থায় মালবিকার মৃতদেহ দেখতে পায় প্রতিবেশীরা। পুলিশ এসে গাছ থেকে ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

মৃত গৃহবধূর দাদা বলেন, কার্তিকের সঙ্গে অন‍্য মেয়ের অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে। এরফলে প্রায়ই মালবিকাকে মারধর করা হত। মঙ্গলবার রাতে বোনকে মারধর করার পর খুন করে প্রমান লোপাটের জন্য গাছের ঝুলিয়ে দিয়েছে।

যদিও মৃত গৃহবধূর স্বামী কার্তিক বর্মন জানিয়েছে যে, মঙ্গলবার রাতে আমার সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়েছিল। এরপর আমি ঘুমিয়ে পড়েছিলাম। কখন এই ঘটনা ঘটেছে আমি জানি না। ময়না থানার ওসি মহম্মদ মহিউল ইসলাম বলেন মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তে পাঠানো হয়েছে। যদিও মৃতার বাপের পক্ষ থেকে থানার অভিযোগ দায়ের করেনি। একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলার রুজু করে তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close