fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

চিকিৎসায় গাফিলতিতে মৃত্যু! দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে নার্স, চিকিৎসক ও কর্মীদের মারধরের অভিযোগ

জয়দেব লাহা, দুর্গাপুর, ১৮ জুলাই: চিকিৎসায় গাফলতিতে রোগী মৃত্যুর অভিযোগ। হাসপাতালের নার্স ও চিকিৎসককে মারধরের অভিযোগ রোগীর পরিবারের বিরুদ্ধে। শনিবার এই ঘটনাকে ঘিরে তুমুল উত্তেজনা ছড়াল দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে পরিস্থতি সামাল দেয়।

জানা গিয়েছে, শুক্রবার রাতে শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয় দুর্গাপুর সগরভাঙার প্রবীর পাল নামে এক রোগীকে। শনিবার ভোরে তার মৃত্যু হয়। মৃতের আত্মীয় ও পরিবারের লোকজনের অভিযোগ, শুক্রবার রাত থেকেই চিকিৎসায় গাফিলতি শুরু হয় চিকিৎসকদের। এরপর শনিবার ভোরে একটি ইঞ্জেকশন দেওয়া মাত্রই মৃত্যু হয় রোগীর।

এই ঘটনার পরই ক্ষোভে ফেটে পড়ে রোগীর পরিবারের লোকজন। মেল ওয়ার্ডের কর্মরত এক নার্স ও ইমার্জেন্সি বিভাগের এক চিকিৎসককে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। হাসপাতালের বেশ কয়েকজন অস্থায়ী কর্মীকেও মারধরের অভিযোগ ওঠে রুগীর আত্মীয়দের বিরুদ্ধে। রোগীর পরিবারের এহেন আচরণে ক্ষোভে ফেটে পড়ে নার্স ও চিকিৎসকরা। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে হাসপাতাল জুড়ে। আতঙ্কে বেশ কিছুক্ষন কর্মবিরতি রাখা হয় হাসপাতালে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দুর্গাপুর নিউটাউনশিপ থানার পুলিশ। ঘটনায় হাসপাতালের সুপার দেবব্রত দাস চিকিৎসায় গাফিলাতির অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, রোগীর যথাযথ চিকিৎসা চলছিল। ওই রোগী মারা যাওয়ার পরই রোগীর পরিবার হাসপাতালের কর্মরত এক নার্স, চিকিৎসক ও কর্মীদের উপর চড়াও হয়। রোগীর পরিবারের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানান তিনি।