fbpx
কলকাতাহেডলাইন

রাখী বন্ধন উৎসবেও তৃণমূলের ‘ওরা আমরা’ আভিযোগ ৯৯ নম্বর ওয়ার্ড কোর্ডিনেটর দেবাশিস মুখোপাধ্যায়-এর

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: সম্প্রীতির উৎসবেও রাজ্যের শাসক দলের ‘আমরা ওরা’। প্রতিবাদে সরব বাম কোর্ডিনেটররা। সোমবার রাখী উৎসবকে কেন্দ্র করে ফের শাসক দলের ‘আমরা ওরা’ নীতি সামনে এল কলকাতা পুরসভার অন্তর্গত ১০ ও ১১ নম্বর বরোতে। রাজ্যব্যাপী ক্রীড়া ও যুব কল্যান দফতরের উদ্যোগে যে রাখী উত্সবের আয়োজন করা হয়েছিল সেখানে বাম কোর্ডিনেটরদের ব্যতি রেখেই অনুস্ঠানের আয়োজন করা হয়। এই ঘটনায় বামেদের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা জানান হয়। এ প্রসঙ্গে ১০ নম্বর ৯৯ নম্বর ওয়ার্ডের কোর্ডিনেটর দেবাশিস মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘গণতন্ত্রে স্বেচ্ছাচারিতায় এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে, যে সম্প্রীতির উৎসবেও ‘ওরা আমরা’ করছে, লজ্জাবোধ করে না।’

প্রতিবাদে সরব হয়ে বোরো চেয়ারম্যান এর কাছে অভিযোগ জানাতে গেলে বাম ১০ নম্বর বরোর চেয়ার ম্যান তপন দাশগুপ্ত বলেন, ‘প্রেসের কাছে যান। ওদের কাছে বলুন। সংবাদমাধ্যমকে আমি ভয় পাই না।’ আসলে রাজ‍্য সরকারের যুব কল‍্যান দফতরের উদ‍্যোগ বিগত কয়েকবছর ধরে পুরসভা ও পন্চায়েত গুলির মাধ‍্যমে ওয়ার্ড ভিত্তিক রাখি বা সম্পৃতি উৎসব পালিত হয়। ওয়ার্ডের নির্বাচিত প্রতিনিধিরাই এর দায়িত্বে থাকেন। কিন্তূ কলকাতা পুরসভার ১০নং ও ১১নং বোরোতে বাম ওয়ার্ড প্রতিনিধিদের এ দায়িত্ব থেকে দূরে রাখা হয়। এ বছরও সরকার অনুষ্ঠান করার জন‍্য ওয়ার্ড পিছু ১৫০০০ টাকা এবং রাখির পরিবর্তে মাস্ক বরাদ্দ করেছেন। কিন্তু অগনতান্রিক ভাবে বাম-কোর্ডিনেটরদের ওয়ার্ডে কোর্ডিনেটরদের বাদ দিয়ে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাদের মাধ‍্যমে বরাদ্দ অর্থ খরচ করা হচ্ছে।

 

এদিন দেবাশিস মুখোপাধ্যায় আরো বলেন, ‘পূর্বতন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় সময় এমনটাই হত। এ বিষয়ে পুরো প্রশাসক মন্ডলীর চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিম কেউ জানিও লাভ হয়নি। বহুবার অভিযোগ জানিয়েছি তবুও ফল কিছু মেলেনি। কারণ ১০ এবং ১১ নম্বর বোরো নিয়ন্ত্রণ করেন ক্রীড়া ও যুব কল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। তার দফতরের অধীনে সমগ্র অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তাই তাকে বলার কারো সাহস নেই। একমাত্র এই দুই বোরো বাদে অন্যান্য সব বোরোতেই সমানভাবে সম্প্রীতি উৎসব পালনের অধিকার দেওয়া হয়েছে বাম কোর্ডিনেটরদের। সে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বা ফিরহাদ হাকিম যেই হোক না কেন, সবাই বামেদেরকে সঙ্গে নিয়েই সম্প্রীতি উৎসব পালন করেছে। কিন্তু একমাত্র এই বোরোতে বামেদের ব্যতিরেকে এই উৎসব পালন করা হল।’

Related Articles

Back to top button
Close