fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

নন্দীগ্রামে ডেকোরেটার্স শ্রমিক সংগঠনের বিক্ষোভ

রাজকুমার আচার্য, নন্দীগ্রাম:  লকডাউনের কারণে দীর্ঘদিন ধরে সেভাবে কোথাও কোনও পুজো বা অন্য কোনও অনুষ্ঠান না হওয়ায় ডেকোরেটার্স শ্রমিকরা বিপাকে পড়েছেন। সংসার চালাতে পারছেন না। বিভিন্ন জায়গায় তাঁদের অসুবিধার কথা জানালেও কোনও সুরাহা না হওয়ায় রবিবার নন্দীগ্রামে পথে নেমে বিক্ষোভ দেখালেন ডেকোরেটার্স শ্রমিক সংগঠন।
এদিন টেঙ্গুয়া মোড়ে শ্রমিকরা তাঁদের বিভিন্ন দাবি নিয়ে বিক্ষোভ দেখান। বিশ্বনাথ মাইতি, বিকাশ বেরা, সঞ্জয়কুমার দাসরা বলেন, ‘আট মাস আমাদের কোনও কাজ নেই। না-খেতে পায়ে মরে যাওয়ার অবস্থা। বিডিও অফিসে এবং বিধায়ক ও মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর নন্দীগ্রামের অফিসেও আমরা আবেদন জানিয়েছি, কিন্তু কোনও সুরাহা হয়নি। আমরা চাই আমাদের আর্থিক সাহায্য করুর সরকার। স্বাস্থ্যবীমা হোক আমাদের। দুর্গাপুজোতে প্যাণ্ডেলে কাজ করতে গিয়ে আমাদের এক শ্রমির ভাই পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন। সরকারি কোনও সাহায্য পাচ্ছেন না।’
একটি ডেকোরেটার্সের মালিক অঙ্কার বল বলেন, ‘ওঁদের অবস্থা সত্যিই খারাপ। আমাদেরও কিছু করার নেই। আমরা কাজ না-করাতে পারলে ওঁদের সাহায্য করব কীভাবে। সরকার যদি আমাদের সাহায্য করত তাহলে আমরাও সাহায্য করতে পারতাম। লক্ষ লক্ষ টাকার মালপত্র পড়ে নষ্ট হচ্ছে, কোনও কাজ নেই। সরকার পুজো কমিটিদের টাকা দিয়েছেন। আমাদেরও যদি সাহায্য করতেন তাহলে সকলেরই সুবিধা হতো।’
নন্দীগ্রাম ১ নম্বর ব্লক তৃণমূল কংগ্রসের সভাপতি মেঘনাদ পাল বলেন, ‘ লকডাউনের কারণে স্বাভাবিকভাবে যেভাবে কোথাও কোনও অনুষ্ঠান না হওয়ার কারণে ওঁরা কাজ পাচ্ছেন না। আর্থিক অনটনে আছেন। সরকারি মাধ্যামে ওঁদের সাহায্যের কথা ভাবা হচ্ছে। ওঁনারা সাহায্য পাবেন। মন্ত্রী শুভেন্দুবাবু সেসব দায়িত্ব নিয়েছেন। পঞ্চায়েতে যোগাযোগ করলে ওঁরা স্বাস্থ্যবীমা পাবেন।’

Related Articles

Back to top button
Close