fbpx
কলকাতাহেডলাইন

আমফান-করোনার পরেও বেকারত্ব কম বাংলায়: ডেরেক

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: সামনেই একুশের নির্বাচন। এই নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে সোশ্যাল মিডিয়ায় নতুন প্রচারাভিযান শুরু করেছে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। মূলত তৃণমূলের রাজ্যসভার দলনেতা ডেরেক ও’ব্রায়েনের মস্তিস্কপ্রসূত এই কর্মসূচিটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘সোজা বাংলায় বলছি’। রবিবার এর প্রথম পর্বে অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় বাংলার কর্মসংস্থানের তুলনামূলক চিত্রটি তুলে ধরার চেষ্টা করলেন ডেরেক।

এদিন ‘সোজা বাংলায় বলছি’ ভিডিও সিরিজের প্রথম পর্বে তৃণমূলের রাজ্যসভার দলনেতা দাবি করলেন, দেশের অন্যান্য বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলির তুলনায় বাংলায় বেকারত্বের হার অনেকটা কম। Centre for Monitoring Indian Economy বা CMIE’র দেওয়া তথ্যকে হাতিয়ার করে ডেরেক বলেন, “অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় বাংলার বেকারত্বের হার কম। আমি বলছি না, CMIE’র তথ্য বলছে। জুন মাসে ভারতে বেকারত্বের হার ছিল ১১ শতাংশ। যেখানে হরিয়ানায় বেকারত্বের হার ছিল ৩৩ শতাংশ। উত্তরপ্রদেশে ৯.৬ শতাংশ, কর্ণাটক ৯.২ শতাংশ, মধ্যপ্রদেশ ৮.২ শতাংশ, সেখানে বাংলায় বেকারত্বের হার ছিল ৬.৫ শতাংশ।” বঙ্গবাসীর উদ্দেশে ডেরেকের অনুরোধ ভোট দেওয়ার আগে ‘একটু ভেবে দেখুন’।

উল্লেখ্য, করোনা পরিস্থিতিতে মিটিং-মিছিল করে জনমত গঠন করা সম্ভব নয়। তাই তৃণমূল এবং বিজেপি দুই শিবিরই এখন ঝুঁকেছেন ভারচুয়াল প্রচারে। বিজেপি অনেক আগে থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের আধিপত্য বিস্তারের লক্ষ্যে বেশ কয়েকটি ভারচুয়াল জনসভা করে ফেলেছে। এবছর ২১ জুলাইয়ের মঞ্চ থেকে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যপাধ্যায়কেও দেখা গিয়েছে ভারচুয়াল জনসভা করতে।

 

Related Articles

Back to top button
Close