fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

রাজ্যসভার নিয়ম ভাঙার জন্য সাসপেন্ড ডেরেক, দোলা, রিপুন-সহ ৮ সাংসদ

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  কৃষি বিল নিয়ে রবিবার উত্তাল হয়ে ওঠে রাজ্যসভা। রাজ্যসভায় অশোভন আচরণের জন্য তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন এবং দোলা সেন সহ ৮ সাংসদকে সাসপেন্ড করলেন চেয়ারম্যান ভেঙ্কাইয়া নাইডু। তাঁর বিরুদ্ধে কংগ্রেসের আনা অনাস্থা প্রস্তাবও খারিজ করে দেন তিনি। সাসপেন্ড করা সাংসদদের অধিবেশন কক্ষ থেকে বাইরে চলে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন চেয়ারম্যান। এদিন অধিবেশনের শুরুতেই ডেপুটি চেয়ারম্যানের সঙ্গে অভব্যতা বিষয়টি উঠলে নায়ডু সাফ জানান, সাংসদের এমন ব্যবহার মেনে নেওয়া যায় না। তাঁদের আত্মসমীক্ষা করা উচিত।

এদিন চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নায়ডু বলেন, “আইন মতেই ডেপুটি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করা যাবে না। গতকাল ওয়েলে নেমে ডেপুটি চেয়ারম্যানকে রীতিমতো হুমকি দেওয়া হয়েছে। তাঁকে নিজের কাজ করতে বাধা দেওয়া হয়েছে। এটা রাজ্যসভার জন্য খুবই খারাপ দিন। আমি সাংসদের বলছি, আপনারা আত্মসমীক্ষা করুন।” এদিকে, কৃষি বিল নিয়ে প্রতিবাদের জেরে ডেরেক ছাড়াও সঞ্জয় সিং, রাজু সাতাব, কে কে রাগেশ, রিপুন বোরা, দোলা সেন, সৈয়দ নাজির হুসেন ও এলামারান করিমকে এক সপ্তাহের জন্য রাজ্যসভ থেকে সাসপেন্ড করেন চেয়ারম্যান ভেঙ্কইয়া নাইডু।

রাজ্যসভার অধিবেশনের শুরুতেই আজ উত্তাল হয়ে উঠেছিল রাজ্য সভা। বিরোধী দলের সাংসদরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। গতকাল পরিকল্পিত ভাবে গণতান্ত্রিক পদ্ধতি না মেনেই রাজ্যসভায় কৃষিবিল পাস করানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছিলেন বিরোধীরা। এই নিয়ে উত্তাল হয়ে উঠেছিল রাজ্যসভা। যার জেরে অধিবেশন প্রায় ভণ্ডুল হওয়ার উপক্রম হয়। বিরোধীদের দাবি, রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যানকে রুল বুক দেখানোর চেষ্টা করেন ডেরেক। তাঁকে সরিয়ে দেন রাজ্যসভার মার্শাল। সেসময় ১০ মিনিটের জন্য অধিবেশন মুলতুবি করে দেওয়া হয়। পরে অধিবেশন শুরু হলে ধ্বনি ভোটে বিল পাশ হয়ে যায়। এরপর কংগ্রেস, তৃণমূল, বাম ও ডিএমকে সাংসদরা রাজ্যসভার কক্ষে ধরনায় বসেন। তবে লোকসভা অধিবেশন শুরুর নির্ধারিত সময়ের আগেই তাঁরা চলে যান। এরপরই ডেপুটি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব  আনেন সাংসদরা। যদিও ডেরেক সাফ জানিয়েছেন, তিনি রুল বুক ছেঁড়ার মতো কাজ করেননি। তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ইসলামি ভারতের চক্রান্ত ফাঁস! কাশ্মীর ও বাংলাকে টার্গেট করছে আল কায়দা জঙ্গিরা

এরপরেই শোনা গিয়েছিল যাঁরা ওয়ালে নেমে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন  রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্গাইয়া নায়ডু। অবশেষে সোমবার জানা গেলে তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন সহ আট বিধায়ককে সাসপেন্ড করা হয়েছে। জানা যাচ্ছে সাসপেন্ড হওয়া সাংসদরা বাদল অধিবেশনের বাকি দিনগুলিতে সংসদে উপস্থিত থাকতে পারবেন না।

রাজনাথ বলেন, ‘রাজ্য সভায় দুটি বিল নিয়ে আলোচনা করার কথা ছিল, কিন্তু যেটা হল তা দুঃখজনক, লজ্জার। সংসদ যাতে মসৃণভাবে চলে তার দায় শাসক দলের পাশাপাশি বিরোধীদেরও। যেটা হল সেটা গণতন্ত্র নয়। রাজ্যসভায় ডেপুটি চেয়ারম্যানের সঙ্গে যা হয়েছে তা গোটা দেশ দেখেছে। লোকসভা বা রাজ্যসভা কোথাও এই ঘটনা আগে ঘটেনি।’

Related Articles

Back to top button
Close