fbpx
কলকাতাহেডলাইন

চারমন্ত্রীকে বলির পাঁঠা করে ময়দান ছাড়লেন দিদি: দিলীপ ঘোষ

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: করোনা মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রীর ক্যাবিনেট কমিটি গড়া, করোনা সন্দেহভাজনদের হোম কোরান্টাইনে রাখার সিদ্ধান্তকে কড়া ভাষায় সমালোচনা করলো গেরুয়া শিবির। মঙ্গলবার বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে কটাক্ষ করেন, ‘ চার মন্ত্রীকে বলির পাঁঠা করে ময়দান ছাড়লেন দিদি।’সোমবার মুখ্যমন্ত্রী নবান্নে বলেন, ‘ একমাস ধরে আমি করোনার বিষয়টা নিজে দেখেছি। কিন্তু আমাদের অন্য কাজওতো আছে। ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়া, পোলিও সবই দেখতে হবে। তাই একটা কমিটি গড়ে দিলাম।’

এ বিষয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘ একমাস ধরে প্রচার, ছবি তোলার রাজনীতি হয়ে গিয়েছে। এখন বুঝতে পেরেছেন ম্যাচ হেরে গিয়েছেন, তাই চার মন্ত্রীকে বলির পাঁঠা করে ময়দান ছেড়ে চলে গেলেন’।। তিনি বলেন, ‘এটা ওঁর পুরনো অভ্যাস। আসলে একমাস ধরে শুধু প্রচার সর্বস্ব রাজনীতি করেছেন। করোনারোধে কোন পরিকল্পনা করেন নি। পরিস্থিতি এখন হাতের বাইরে, তাই ব্যর্থতার দায় যাতে নিজের ঘাড়ে না আসে তাই অমিত মিত্রকে মাথায় বসিয়ে নিজে সরে গেলেন। কেন এতোদিন করোনার কোন বিষয়ে চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, পার্থ চট্টোপাধ্যায়দের দেখা মেলেনি। কি অবস্থা, দুজন চিকিৎসক মারা গেলেন। ডিভিসির একজন অফিসার করোনায় মারা গিয়েছেন, পরিবারের কাছে কোন তথ্য নেই। তাঁর অন্ত্যেষ্টি হয়েছে কিনা পরিবারের লোকজন জানেন না। এই ভয়ঙ্কর অবস্থায় উনি দায়িত্ব ছেড়ে সরে পড়লেন।’

আরও পড়ুন: টিকিয়াপাড়ায় লকডাউন মানাতে গিয়ে আক্রান্ত পুলিশ

করোনা সন্দেহভাজনদের হোম আইসোলেশনের তীব্র বিরোধিতা করেন দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, ‘ অত্যন্ত অবৈঞ্জানিক সিদ্ধান্ত। করোনা সন্দেহভাজনদের বাড়িতে কিভাবে আইসোলেশন সম্ভব? কিভাবে তাঁর চিকিৎসা হবে। তিনি দেখাশোনা করবেন তাঁর পিপিই পোশাক, অন্য সরঞ্জামের কি ব্যবস্থা হবে। কি বলবো, আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত। এরফলে যিনি ওই করোনা সন্দেহভাজনকে দেখাশোনা করবেন তিনিও আক্রান্ত হয়ে পড়বেন।’

Related Articles

Back to top button
Close