fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আগামী বিধানসভা নির্বাচনে দিদির পুলিশ থাকবে না, থাকবে মোদি সরকারের পুলিশ: দিলীপ ঘোষ

সুদর্শন বেরা, পশ্চিম মেদিনীপুর: আগামী বিধানসভা নির্বাচনে কোনও দিদির পুলিশ থাকবে না, থাকবে দিল্লির মোদি সরকারের পুলিশ বলে কেশপুরের খেতুয়ার সভায় মন্তব্য বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের। বুধবার পশ্চিমমেদিনীপুর জেলার কেশপুর ব্লকের খেতুয়া এলাকায় কৃষি আইনের সমর্থনে ‘শুনুন কৃষি ভাই’ নামে এক সভার আয়োজন করে বিজেপি। ওই সভায় বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা মেদিনীপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে নির্বাচিত সাংসদ দিলীপ ঘোষ, বিজেপির রাজ্য সম্পাদক তুষার মুখার্জি, বিজেপির ঘাটাল সাংগঠনিক জেলার সভানেত্রী অন্তরা ভট্টাচার্য সহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন। ওই সভার প্রধান বক্তা সাংসদ দিলীপ ঘোষ তার ভাষণে বলেন, গরীব মানুষের জন্য দিদির প্রাণ কাঁদে না। কেন্দ্র সরকারের দেওয়া ১৪ হাজার টাকা থেকে বঞ্চিত রাজ্যের ৭৩ লক্ষ কৃষক। এখানে কাটমানি খেতে পারবে না তাই দিদি কেন্দ্র সরকারের কৃষক নিধি প্রকল্প চালু করেনি। আমফান ঝড় এর টাকা, আবাস যোজনার টাকা তৃণমূল মেরে খেয়েছে।

দিলীপ ঘোষ তার ভাষণে কৃষি আইনের ইতিবাচক দিক গুলি তার ভাষণে তুলে ধরেন। বিজেপির রাজ্য সভাপতি তাঁর ভাষণে বলেন, যে কৃষি বিল নিয়ে আপনারা ভয় পাবেন না। ওই কৃষি বিল কৃষকদের ভালো করার যান কেন্দ্র সরকার পাস করিয়েছে। কেন্দ্র সরকার কৃষকদের পাশে রয়েছে। তিনি তার ভাষণে বলেন আগামী বিধানসভা নির্বাচনে কোনও দিদির পুলিশ থাকবে না। থাকবে দিল্লির মোদি সরকারের পুলিশ। যদি দিদির ভাইয়েরা ভোট কেন্দ্রে এসে বদমাশি করলে তাহলে তাদের শায়েস্তা করে দেব। তিনি বলেন আপনারা আর কয়েকটা দিন অপেক্ষা করুন, তারপর বাংলায় বিজেপি সরকার গড়বে। বাংলার উন্নয়ন হবে, তখন দিদির ভাইয়েরা পালাতে রাস্তা খুঁজে পাবে না।

আরও পড়ুন: কাঁথি শহরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড…পুড়ে ছাই তুলোর গোডাউন, ক্ষয়ক্ষতি প্রায় ৬ লক্ষ টাকা

এদিন দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে দিলীপ ঘোষ বলেন, আপনারা ওদের ভয় না করে দলকে শক্তিশালী করে তোলার কাজ করে যাবেন, আপনাদের পাশে দল রয়েছে। কেশপুরের খেতুয়ার সভা শেষ করে তিনি চন্দ্রকোনা টাউন থানার ক্ষীরপাই শহরের হালদার দীঘিতে বিডিও অফিসের পাশের মাঠে গিয়ে বুধবার তার দ্বিতীয় সভা করেন। সেখান থেকে দিলীপ ঘোষ ঘাটাল শহরে যান। সেখানে তিনি ঘাটাল স্টেট ব্যাংকের পাশের মাঠে তার বুধবারের তৃতীয় সভা করেন। দিলীপ ঘোষ তার প্রতিটি সভায় রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের তীব্র সমালোচনা করেন।

Related Articles

Back to top button
Close