fbpx
কলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মানহানির অভিযোগে খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিককে আইনি নোটিশ দিলেন দিলীপ ঘোষ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মানহানির অভিযোগে খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিককে আইনি নোটিশ দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।দিলীপ ঘোষের আইনজীবী পার্থ ঘোষ জানান, তাঁর মক্কেল দীলিপবাবুর পাঠানো আইনি নোটিশে আগামী তিন দিনের মধ্যে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি, সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত এই বক্তব্য প্রত্যাহার করে নেওয়ার কথা জানানো হয়েছে। যদি তিনি ক্ষমা চান এবং প্রত্যাহার না করে নেন তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনানুগভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান দিলীপ ঘোষের আইনজীবী পার্থ ঘোষ।

দীলিপ বাবুর আইনজীবী পার্থ ঘোষ আরও জানান, ‘উত্তর ২৪ পরগনা জেলার সদর বারাসাতের মতো একটি জায়গায় গত ১৬ নভেম্বর প্রকাশ্য জনসভায় জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন, ‘দিলীপের কথা একদম ধরবেন না। দিলীপের শিক্ষাগত যোগ্যতা ক্লাস -টু পাস। দিলীপ ঘোষ ভালো করে কিছুই জানেনা। মাঝে মাঝে এই অমিত শা আসছে, নাড্ডা আসছে, আর তাঁদের একটা করে ম্যাপ দেখাচ্ছে।’

এছাড়াও, ‘২০২১-এর মে মাসের পর, যতগুলো বিজেপি নেতা আছে, সব জেলে ঢুকবে। এদের সব কেচ্ছা-কেলেঙ্কারিতে ভর্তি। মুখে আনতেও লজ্জা লাগছে। মহিলা ঘটিত মামলা থেকে টাকা চুরি সবই আছে। ওদের দলের প্রতিটি লোকই নোংরা। চিটিংবাজ টাইপের মানসিকতা।’ এর পাশাপাশি, বাংলাদেশ থেকে অস্ত্র আমদানি করছে বিজেপি।বিএসএফ আর কাস্টমের মাধ্যমে নির্বাচনে ব্যবহারের জন্য বাংলাদেশ থেকে অস্ত্র আনছে। দিল্লিতে সব ব্যবসায়ীদের ধরে নিয়ে গিয়ে তাঁদের দিয়ে কুকর্ম করাচ্ছেন। তাঁদের কাছ থেকে টাকা নিচ্ছেন। বিনিময়ে তাঁদের কাজ করিয়ে দিচ্ছেন এই হল দিলীপের ব্যবসা।’

দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের এই ধরণের মিথ্যে, অপমানজনক ও মানহানিকর বক্তব্য বেসরকারী সংবাদ মাধ্যমেও প্রকাশিত হয়। তাই এই বক্তব্যের প্রেক্ষিতে তার মক্কেলের ক্ষতি এবং রাজনৈতিক মর্যাদা ক্ষুন্ন হয়েছে বলে মনে করে করে আইনি নোটিশ দিলেন দিলীপ ঘোষ।

Related Articles

Back to top button
Close