fbpx
কলকাতাহেডলাইন

বক্তব্য বিকৃতির অভিযোগে কাকলি ঘোষ দস্তিদারকে আইনি নোটিশ দিলীপ ঘোষের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মিথ্যা অপপ্রচারের অভিযোগে আইনি ব্যবস্থার নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে এবার বারাসাতের তৃণমূল সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদারকে আইনি নোটিশ ধরালেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা খড়গপুরের বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষ। দিলীপ ঘোষের আইনজীবী পার্থ ঘোষ জানান, সোমবার কাকলি ঘোষ দস্তিদারকে পাঠানো আইনি নোটিশে আগামী ৩ দিনের মধ্যে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার কথা বলা হয়েছে। নইলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান দিলীপ ঘোষের আইনজীবী পার্থ ঘোষ।

এ প্রসঙ্গে পার্থ বাবু জানান, সূত্রপাত গত ৭ নভেম্বর। ওইদিনই একটি টুইট করেন কাকলি ঘোষ দস্তিদার। বিজেপি রাজ্য সভাপতির মন্তব্য উদ্ধৃত করা টুইটে লেখা ছিল, ‘নাগরিকত্ব নিয়ে মতুয়ারা যদি বেশি কথা বলে তবে মতুয়াদের ভোট আমাদের চাই না। মতুয়ারা নাগরিকত্ব নিয়ে বিজেপিকে ব্ল্যাকমেল করছে, মতুয়া ভোট আমাদের চাই না।’ আইনজীবীর দাবি, কাকলি ঘোষ দস্তিদারের টুইটে উল্লেখিত মন্তব্য তাঁর মক্কেলের নয়। এটি সম্পূর্ণ মিথ্যে, অতিরঞ্জিত এবং রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হবে তার মক্কেল কে অপদস্থ করার চেষ্টা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: দেশের ৫৬টি বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনে সাফল্য বিজেপির

প্রসঙ্গত, ঘটনার দিনই বিকেলে সাংবাদিক বৈঠক করে টুইটের তীব্র বিরোধিতা করেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব কীভাবে এমন ‘মিথ্যে’ কথা টুইটে উল্লেখ করতে পারলেন সেই প্রশ্নও তোলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। এ প্রসঙ্গে বিজেপি সাংসদ হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিলেন, ‘সাইবার ক্রাইম করেছেন কাকলি ঘোষ দস্তিদার। আমার নামে ভুল টুইট করেছেন। আমি জানিনা উনি নিজের টুইটার অ্যাকাউন্ট চালান কিনা। যদি না চালান তবে এটা কী আইপ্যাকের লোক চালিয়েছে? তাঁরাই এমন টুইট করেছেন কিনা আমি জানিনা। একজন সাংসদের সম্পর্কে মিথ্যে কথা প্রচার করেছেন। আমার আইনজীবীকে বলেছি উপযুক্ত আইনি ব্যবস্থা নিতে। বাংলার রাজনীতির এতটা অধঃপতন না হওয়াই উচিত।

Related Articles

Back to top button
Close