fbpx
হেডলাইন

বিজেপির অনগ্রসর শ্রেণির কর্মীরাই রাজনৈতিক হিংসার শিকার: দিলীপ 

নিজস্ব প্রতিনিধি,নদিয়া: রাজ্যে যে রাজনৈতিক হিংসা হচ্ছে তার সিংহভাগ আক্রমণ নেমে আসছে দলিত, অনগ্রসর শ্রেণির মানুষের উপর। গত কয়েক বছরে বিজেপির যেসব কর্মী রাজনৈতিক হিংসার শিকার হয়েছেন তাঁদের একটা বড়ো অংশ এই পিছিয়ে পড়া সমাজের মানুষ।রবিবার নদিয়ার মায়াপুরের বামুনপুকুরে ওবিসি মোর্চার রাজ্য কমিটির রাজ্য কার্য্যকারিনী সভায় এসে এই দাবি করেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।
তিনি বলেন, ‘:রাজ্যে যে রাজনৈতিক হত্যা হচ্ছে তাতে এই সমাজের বেশিরভাগ মানুষ মারা যাচ্ছেন, রাজনীতির হিংসার বলি হচ্ছেন। আমাদের পার্টির যাঁরা রাজনৈতিক হিংসার বলি হয়েছেন তাঁদের বেশিরভাগ পিছিয়ে পড়া সমাজের।’
তিনি বলেন, ‘ দলিত, অনগ্রসর শ্রেণির মানুষ তৃণমূলের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন। গত লোকসভা নির্বাচনে রাজবংশী,মতুয়া এস,সি এস টি, ওবিসি সবাই বিজেপিকে ভোট দিয়েছেন।’
তৃণমূল নেত্রীকে বিঁধে মেদিনীপুরের সাংসদ বলেন,’ গত ১০ বছরে কিছু করেন নি, এখন ভোটের আগে নাটক করছেন? এখন যতই মন রাখার চেষ্টা করুন, লাভ হবে না। পশ্চিমবঙ্গে দলিতরা অত্যাচারিত ,এসটি এসসি ওবিসি সংখ্যালঘু শ্রেণীর লোকেরা পিছিয়ে আছে।। একুশের নির্বাচনে সব হিসাব হবে।’
তিনি বলেন , ‘ তৃণমূল বিজেপিকে ভয় পাচ্ছে। আমরা যেসব জায়গা দুর্বল ছিলাম সেই সব জায়গায় তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে সবাই চলে আসছেন। তাই আর কোন রাস্তা না পেয়ে আমাদেরকে রাস্তা আটকে ইট পাথর মারছে। কালো পতাকা দেখাচ্ছে। ভয় দেখাচ্ছে পুলিশকে দিয়ে মিথ্যে কেস দিয়েছে। এটা ওদের শেষ পর্যায়ে চলে গেছে। তাই অগণতান্ত্রিকভাবে আমাদের আটকাতে চেষ্টা করছে। কিন্তু এভাবে বিজেপিকে আটকানো যাবে না।’ ওবিসি মোর্চার রাজ্য কমিটির রাজ্য কার্য্যকারিনী সভায় উপস্থিত ছিলেন সর্বভারতীয় সভাপতি এল, লক্ষণ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ সহ নদিয়া উত্তরের সভাপতি আশু পাল এবং বিভিন্ন জেলা থেকে বিজেপির সভাপতি ও পর্যবেক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

Related Articles

Back to top button
Close