fbpx
কলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

তেলেনিপাড়ায় নির্দোষ হিন্দুদের বিরুদ্ধে মামলা করছে দিদির পুলিশ, দিলীপ ঘোষ

শংকর দত্ত, কলকাতা : গত কদিন হুগলির ভদ্রেশর এর তেলেনিপাড়া নিয়ে রাজ্য রাজনীতি সরগরম। মূলত সরকার পক্ষ ও রাজ্য বিজেপির মধ্যে এ নিয়ে দ্বন্দ্ব লেগেই আছে।একদিকে চলছে প্রশাসনিক তৎপরতা অন্য দিকে বিরোধীদের একাংশের নানান অভিযোগ। এ নিয়েই আবার মুখ খুললেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি সাংসদ দিলীপ ঘোষ। রবিবার সংবাদ মাধ্যমের কাছে একপ্রকার তিনি বিস্ফোরক হয়ে ওঠেন।

 

বিশেষত তার দলের দুই সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় ও অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে মামলা করা নিয়ে তিনি সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন। একই সঙ্গে প্রশাসনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেন, ‘ওখানে নির্দোষ হিন্দুদের বিরুদ্ধে পুলিশ মামলা করছে।’ এদিন রাজ্যে পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরানো নিয়েও তিনি সরকারকে একহাত নেন তিনি। তিনি ক্ষোভ, ‘একমাসে ১০৫ টি ট্রেনে নাকি পরিযায়ী শ্রমিকদের সরকার ঘরে ফেরাবে। এই ধরণের ঘোষণার মানে রাজ্যের মানুষকে আসলে বোকা বানানো ছাড়া কিছুই নয়।’

 

 

রেশন দুর্নীতি নিয়েও আবার এদিন তিনি মুখ খোলেন। তাঁর বিস্ফোরক দাবী, ‘এখানে খাদ্যমন্ত্রীর অনুপ্রেরণায় তৃনমূল কর্মীরা রেশন লুট করে সাধারণ মানুষের মুখের গ্রাস করে নিচ্ছে।’ খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিককে বিঁধে তিনি কটাক্ষ করেন, ‘ সব থেকে বেশি রেশন দুর্নীতি হয়েছে খাদ্যমন্ত্রীর নিজের এলাকায়।’ শুধু এখানেই থেমে থাকেননি দীলিপ বাবু। তিনি তাঁর স্বকীয় ভাবমূর্তিতেই বলেন, ‘ আর মাত্র কটা দিন।বর্তমান পরিস্থিতি বলে দিচ্ছে এ রাজ্যে বিজেপির ক্ষমতায় আসা শুধুই সময়ের অপেক্ষা। ‘

 

 

প্রসঙ্গত কয়েকদিন আগেই এ নিয়ে এমন মন্তব্য করেছিলেন বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত ও। তিনিও প্রায় একই সুরে বলেছিলেন।করোনা নিয়ে রাজ্য সরকার যেভাবে নাজেহাল,তাতে ভবিষ্যতে তৃণমূলের ঘুরে দাড়ানো মুসকিল। এদিন দীলিপ বাবুর কথাতেও সেই প্রতিধ্বনিই আবার ফুটে উঠলো।

Related Articles

Back to top button
Close