fbpx
কলকাতাহেডলাইন

ভবানীপুর কাণ্ডে কমিশনের ভূমিকায় সরব বিজেপি, আজই দিল্লি যাচ্ছেন দিলীপ-সুকান্তরা

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্কঃ ভবানীপুরে প্রচারে নেমে হেনস্থার শিকার হয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এই ঘটনায় নির্বাচন কমিশনের ভূমিকায় সরব হয়েছে বিজেপি। এই ঘটনায় আজ মঙ্গলবারই দিল্লিতে যাচ্ছেন দিলীপ ঘোষ, সুকান্ত মজুমদাররা।  এদিন কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন তাঁরা। ভবানীপুরে শেষদিনের প্রচারে দিলীপ ঘোষের সঙ্গে যেভাবে ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটেছে, সেই সেই কথা নিয়ে আলোচনা হবে। বিজেপির বক্তব্য একেবারেই স্পষ্ট, যদি ভোটপ্রচারই তারা করতে না পারে। তা হলে ভোট করিয়েই বা লাভ কী।  বিজেপির তরফে দাবি তোলা হয়েছে, শুধু সোমবারের ঘটনাই নয়। উপনির্বাচনের প্রচারে গিয়ে দফায় দফায় আক্রমণের শিকার হতে হয়েছে তাদের দলীয় নেতাদের। এমনকী প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়ালের সঙ্গে কলকাতা পুলিশ দুর্ব্যবহার করেছে।

সোমবার ভবানীপুরে ভোটের প্রচার দিলীপ ঘোষকে হেনস্থার অভিযোগ ওঠে। বিজেপির অভিযোগ তৃণমূলের মদতে এই ধরনের কাজ হচ্ছে। এদিকে তৃণমূল এই অভিযোগ অস্বীকার করেন। এদিকে সোমবার প্রচার ঘিরে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় ভবানীপুর চত্বর। যদুবাজারে তৃণমূল বিজেপির সংঘর্ষে তৃণমূলের এক কর্মী গুরুতর আহত হন। তাকে তাকে এসএসকেএম জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে। এদিন তাঁর শারীরিক অবস্থা জানতে কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্র হাসপাতাল এসেছিলেন। অসুস্থ তৃণমূল কর্মীর সঙ্গে দেখা করেন তিনি। সেই সঙ্গে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি বলেন, ‘দিলীপ ঘোষ প্রচার করতে এসে ভবানীপুর কেন্দ্রে অশান্তি সৃষ্টি করেছেন। বাংলার মানুষ সব দেখছেন। ২০২১-এ বিজেপি বাংলা থেকে হারিয়ে গিয়েছে। এবার ভবানীপুর কেন্দ্রে হেরে গিয়ে এই বাংলা থেকেও কাউকে দেখা যাবে না। বিজেপি দল হেরো পার্টি’।

 

Related Articles

Back to top button
Close