fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সারা রাজ্যের সঙ্গে দিনহাটাতে মেঠো প্রতিবাদ আন্দোলন  

নিজস্ব সংবাদদাতা দিনহাটা: বিধানসভা নির্বাচনের দিন ঘোষণা হওয়ার  আগেই দলকে সাজিয়ে তুলতে কেন্দ্র  সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগঠিত করে চলছেন রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল। তৃণমূলের কৃষক সংগঠন কিষান মজদুর এর উদ্যোগে সারা রাজ্যের সঙ্গে সঙ্গে দিনহাটাতে মেঠো প্রতিবাদ আন্দোলন সংগঠিত হয়। শাড়ির উপর ভর্তুকি তোলার প্রতিবাদে এদিন জমিতে নেমে কৃষকদের সঙ্গে নিয়ে এ আন্দোলনকে ঘিরে ব্যাপক সাড়া পড়ে। কেন্দ্রের কৃষক বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে দিনহাটাতে মেঠো প্রতিবাদ আন্দোলন মহকুমার বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় সংগঠিত হয়। পাশাপাশি কৃষকদের নিয়ে সভা করে তৃণমূলের কৃষক সংগঠন।

সংগঠনের পক্ষ থেকে দিনহাটা মহকুমার বিভিন্ন ব্লকে বুধবার মাঠে নেমে কৃষকদের সঙ্গে নিয়ে ন্যায্য পাওনার দাবিতে  দিনহাটা মহকুমার বিভিন্ন এলাকায়  প্রতিবাদ আন্দোলন সংঘটিত হলে সেখানে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি অংশ নেন  কর্মী-সমর্থকরা।

এদিন মহকুমার সিতাই সহ দিনহাটা এক  ও দুই ব্লকের বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়  কৃষকের ন্যায্য পাওনা দাবিতে পৃথক পৃথক ভাবে মেঠো প্রতিবাদ আন্দোলন সংগঠিত হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক জগদীশচন্দ্র বর্মা বসুনিয়া, শরৎ চন্দ্র বর্মন,  তৃণমূল মহিলা কংগ্রেস নেত্রী মমতাজ বেগম, মিলন সেন, আবুয়াল আজাদ, পর্বানন্দ বর্মন, মোশারফ হোসেন, মনোরঞ্জন বর্মন প্রমুখ। এদিন মাঠে-ঘাটে তৃণমূল কৃষক সংগঠনের এই মেঠো প্রতিবাদকে ঘিরে বেশ আলোড়ন ছড়িয়ে পড়ে।

[আরও পড়ুন- আইনজীবী রজত দে হত্যাকাণ্ডে যাবজ্জীবন স্ত্রী অনিন্দিতার]

বিধায়ক জগদীশচন্দ্র বর্মা বসুনিয়া, তৃণমূল মহিলা কংগ্রেস নেত্রী মমতাজ বেগম, পর্বানন্দ বর্মন প্রমূখ বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার শাড়ির উপর থেকে ভর্তুকি তুলে নেওয়ায় দেশের কৃষকরা আজ কঠিন সমস্যায় পড়েছে। কৃষি ও কৃষককে রক্ষা করতে তৃণমূল নেত্রী আন্দোলনের ডাক দিয়েছে। কৃষক বিরোধী বিভিন্ন নীতির প্রতিবাদে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মেঠো প্রতিবাদ আন্দোলনের ডাক দেওয়ায় এদিন  বিভিন্ন এলাকায় কৃষকদের সাথে নিয়ে মাঠে নেমে আন্দোলনকে সংগঠিত করা হয়।

কৃষকদেরকে নানাভাবে বঞ্চিত করছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। যারা দিন-রাত ২৪  ঘন্টা  খেটে চলছে তাদেরকে রাজ্য সরকার সাধ্যমত বিভিন্ন প্রকল্পের মধ্য দিয়ে সহযোগিতা করে চলছে। অথচ কেন্দ্রীয় সরকার তাদের বঞ্চনা করছে।

 

Related Articles

Back to top button
Close