fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

একটানা কয়েক ঘণ্টার বৃষ্টিতে জলমগ্ন দিনহাটা শহর

নিজস্ব সংবাদদাতা, দিনহাটা: রাত থেকে শুরু হওয়া একটানা কয়েক ঘণ্টার বৃষ্টিতে জলমগ্ন হয়ে পড়ল শহর দিনহাটা। শনিবার গভীর রাত থেকে রবিবার সকাল পর্যন্ত টানা এই বৃষ্টিতে শহরের অধিকাংশ এলাকায় জলমগ্ন হয়ে পড়ে। কোথাও কোথাও বাড়িতে জল ঢুকে পড়ে । জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, দিনহাটায় শনিবার রাত থেকে সকাল পর্যন্ত ১৬০.৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। টানা কয়েক ঘণ্টার বৃষ্টিতে শহরের বিভিন্ন এলাকায় জল দাঁড়িয়ে পড়ে। শহরের হাসপাতাল মোড় এলাকা, গোপাল নগর স্কুল সংলগ্ন এলাকা ছাড়াও ভবানী হল রোড, ফুলদীঘি সংলগ্ন শহীদ কর্নার এলাকা, শীতলাবাড়ি, বোর্ডিং পাড়া, পশু হাসপাতাল চত্বর, গোপালনগর এলাকা, স্টেশন পাড়া এলাকা, বলরামপুর রোড ছাড়াও বিভিন্ন ওয়ার্ডের রাস্তায় রাস্তায় হাঁটু জল দাঁড়িয়ে পড়ে। গোপালনগর এলাকায় বেশ কয়েকটি বাড়িতে জল ঢুকে যায়। প্রতি বারই বৃষ্টিতে জল দাঁড়িয়ে পড়লেও নিষ্কাশনের সুষ্ঠ ব্যবস্থা আজও গড়ে না ওঠায় ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে বাসিন্দাদের মধ্যে।

পাশাপাশি বিরোধী বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলির পক্ষ থেকেও জল নিষ্কাশনের সুষ্ঠ ব্যবস্থা গড়ে তুলতে মাস্টার প্ল্যান আজও গড়ে না ওঠায় প্রতিবছর বর্ষায় বাসিন্দাদের কে জলমগ্ন হতে হচ্ছে বলে অভিযোগ তোলা হয়েছে। বিরোধীদের পক্ষ থেকে অবিলম্বে মাস্টার প্ল্যান গড়ে তোলার দাবি উঠেছে। দীর্ঘ বছরেও শহরে জল নিষ্কাশন এর কোন মাস্টারপ্ল্যান গড়ে না ওঠায় আগামী নির্বাচনে এর প্রভাব পড়বে বলেও মনে করছেন অনেকে। পুর কর্তৃপক্ষ অবশ্য জানান শহরের জল নিষ্কাশন এর মাস্টার প্ল্যান করে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দিনহাটা পৌরসভা এলাকার বাসিন্দাদের অনেকেই বলেন অল্প সময়ের বৃষ্টি হলেই জলমগ্ন হয়ে পড়তে হয় তাদের। গোপালনগর এলাকার তাদের অনেকেরই বাড়িতেও জল ঢুকে পড়েছে বলেও তারা জানান। শহরের বিভিন্ন এলাকায় ছোটখাটো ড্রেন তৈরি করা হলেও বৃষ্টির জল নদীতে ফেলার স্থায়ী কোন সমাধান না হওয়ায় আর কতদিন তাদের এভাবে জলমগ্ন থাকতে হবে তানিয়েও প্রশ্ন তোলেন অনেকে।

বিজেপি কোচবিহার জেলা সম্পাদক সুদেব কর্মকার, দিনহাটা শহর মন্ডল সভাপতি অমিত সরকার, মিলন মোদক প্রমুখ বলেন সামান্য বৃষ্টিতে যেভাবে শহর জলমগ্ন হয়ে পড়ছে তাতে সাধারণ মানুষকে দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে। বিজেপি আগামী নির্বাচনে ক্ষমতায় এলে সারা রাজ্যের সাথে সাথে দিনহাটা শহর কেউ নতুন করে সাজিয়ে তুলবে। সেই সাথে জল নিষ্কাশন এর জন্য শহরে মাস্টার প্ল্যান গড়ে তোলার সুষ্ঠু ব্যবস্থা করবে।
তৃণমূল নেতা দিনহাটা পুরসভার কো-অর্ডিনেটর গৌরীশংকর মাহেশ্বরী বলেন, দিনহাটা পুরসভা ইতিপূর্বে বামেদের দখলে ছিল। দীর্ঘ বছর বামেরা পুরসভার ক্ষমতায় থাকলেও জল নিষ্কাশনের জন্য মাস্টারপ্ল্যান গড়ে তুলতে ব্যর্থ হয়েছে। পুরসভার ক্ষমতা তৃণমূলের হাতে আসার পর নানারকম উন্নয়নমূলক কাজ শুরু হয়েছে।

পাশাপাশি মাস্টার প্ল্যান গড়ে তোলার জন্য পুর কর্তৃপক্ষের পরিকল্পনার মধ্যে রয়েছে। তিনি আরও বলেন এক টানা বৃষ্টিতে শহরের কোথাও কোথাও জল দাঁড়িয়ে পড়লেও অল্প সময়ের মধ্যেই সেই জলে নামতে শুরু করে। পুর প্রশাসক বিধায়ক উদয়ন গুহ বাইরে থাকায় তার নির্দেশে এদিন তিনি ছাড়াও পুরসভার আরেক কো-অর্ডিনেটর জয়দীপ ঘোষ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখেন এবং প্রশাসককে বিস্তারিত রিপোর্ট দেন। কোথাও কোথাও ড্রেনের মুখ আটকে পড়লে পুরসভার কর্মীরা দ্রুততার সাথে সেই জল বের করার চেষ্টা করেন

Related Articles

Back to top button
Close