fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

অমিত শাহের নির্দেশে বিরল অসুখে আক্রান্ত বিভীষণ হাঁসদার মেয়ের চিকিৎসার দায়িত্ব নিল বিজেপি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিরল ‘ডায়াবেটিস ইনসিপিডাসে’ আক্রান্ত বাঁকুড়ার চতুর্দিহি গ্রামের বিভীষণ হাঁসদার মেয়ের রচনা হাঁসদা। রবিবার থেকে তার চিকিৎসার দায়িত্ব নিল বঙ্গ বিজেপি। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ তাঁর বাড়িতে মধ্যাহ্ন ভোজন করার পর থেকে বিভীষণ হাঁসদা সংবাদ মাধ্যমে পরিচিত নাম। সাহস করে মেয়ের সমস্যার কথা জানাতে পারেন নি দোর্দণ্ড প্রতাপ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে। কিন্তু দলীয় নেতৃত্বের কাছে বিষয়টি জানতে পেরে অমিত শাহ মেয়েটির চিকিৎসার দায়িত্ব নেওয়ার নির্দেশ দেন বিজেপি নেতৃত্বকে।

সেইমতো রবিবার সকালেই বাঁকুড়ার বিভীষণ হাঁসদার বাড়িতে হাজির হলেন বিজেপি সাংসদ চিকিৎসক সুভাষ সরকার । বিভীষণবাবুর মেয়ের চিকিৎসার কাগজ পত্র খতিয়ে দেখেন তিনি। এদিন দুপুরে রচনার রক্তপরীক্ষা হয়।
বাঁকুড়ার সাংসদ বলেন, ‘ রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার কি অবস্থা, গত মে মাসে থেকে মেয়েটি সরকারি হাসপাতালে কোন পরিষেবা পাচ্ছে না। অথচ অনেক সম্পন্ন মানুষ শুধু রাজনৈতিক কারণে বিনামূল্যে চিকিৎসা পরিষেবা পাচ্ছে। অমিতজির নির্দেশে আমরা মেয়েটির চিকিৎসার দায়িত্ব নিলাম। মেয়েটি বিরল ‘ডায়েবেটিস ইনসিপিডাসে’ আক্রান্ত। ছোটবেলায় মেয়েটি এই অসুখে আক্রান্ত হয়েছে। দীর্ঘমেয়াদি চিকিৎসা দরকার। অমিতজি বলেছেন, প্রয়োজনে এইমসে নিয়ে যাওয়ার জন্য।’

বাঁকুড়ার প্রত্যন্ত গ্রামের বিভীষণ হাঁসদার মেয়ে রচনা দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়ে। গত দু বছর ধরে চলছে চিকিৎসা। নিয়মিত নিতে হয় ইনসুলিন। ফলে মাসে মেয়ের চিকিৎসার জন্যই বিভীষণের খরচ হয় ৫ থেকে ৭ হাজার টাকা। যা জোগাতে কার্যত হিমশিম খেতে হয় তাঁকে। এই পরিস্থিতিতে বিজেপির এই সহযোগিতায় আশার আলো দেখতে শুরু করেছেন বিভীষণ। তিনি বলেন, ‘সাধারণ মানুষ হিসেবে মেয়ের চিকিৎসার আবেদন করেছিলাম, কোনও রাজনৈতিক দলের কর্মী হিসেবে নয়। তাই দয়া করে আমাকে কোনও রাজনীতিতে জড়াবেন না।’

Related Articles

Back to top button
Close