fbpx
কলকাতাবিনোদনহেডলাইন

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের স্মৃতিচারণায় পরিচালক সুশান্ত পালচৌধুরী

বিপাশা চক্রবর্ত্তী, কলকাতা: কিংবদন্তী অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের স্মৃতিচারণা করলেন পরিচালক সুশান্ত পালচৌধুরী। অভিনেতার মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ পরিচালক আবেগপ্রবণ হয়ে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের কিছু কথা তুলে ধরেন। সুশান্তবাবু বলেন, ‘আমার ‘বাবু’ মানে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে আমি ৬ টা ছবি ও ১টি টেলিছবি ( উপলব্ধি ) পরিচালনার দায়িত্বে ছিলাম।

ছবিগুলি হল,
১. হদয়ের একূল ওকূল
২. আজও দুচোখে তুমি
৩. অর্ন্তদাহ
৪. এক ঝাঁক ইচ্ছে ডানা
৫. একা এবং একা
৬. অপরাজিতা

এত বড় মেগাস্টার কিন্তু তার মধ্যে কোন অহংকার বোধ ছিল না। অর্ন্তদাহ ছবির আগের দিন ওঁনার ব্যাস্ততার দরুণ Script পৌঁছানো সম্ভব হয়নি। পরের দিন সকালে আমি ফোন করে বললাম বাবু ১০ টায় আপনার বাড়িতে গাড়ি যাবে। উনি বলেছিলেন ঠিক আছে কিন্তু আমাকে ১ ঘন্টা সময় দিতে হবে তো, Script সরগর করতে হবে, আমি যে ভীষণ ‘Weak Artist’। আমি বাকরুদ্ধ হয়ে গিয়েছিলাম। এতবড় প্রতিভা অথচ কি বিনয়ী…।
সুশান্তবাবু আরও জানান, ‘ উনি যে কত বড় দয়ালু মানুষ ছিলেন আর একটা ঘটনা বলি| একদিন গল্ফগ্রীনে বিভাসদার ( বিভাস চক্রবর্তী বাড়িতে যাচ্ছি। বাবু তখন গাড়িতে উঠছিলেন। আমাকে দেখতে পেয়ে বললেন “তুমি এখন কি করছ?” আমি বললাম আমার পর পর তিনটে ছবি ভালো সাড়া পায়নি, মনটা খুব খারাপ ও একদম বেকারবাবু। উনি বললেন কাল ১০ টার আগে আমার বাড়িতে এস, খুব Urgent. পরের দিন ওঁনার বাড়িতে যেতেই একটা খাম দিয়ে আমাকে বললেন ” এটা রাখ আর ভেঙে পড়ো না, দৌড়ও দৌড়ও , কখনও থেমে থেকো না |” বাড়িতে এসে দেখলাম খামে ২০ হাজার টাকা| দেখে আনন্দে কেঁদে ফেলেছিলাম। ওঁনার আর্শীবাদেই কিছুদিনের মধ্যে ছবি শুরু করলাম অর্ন্তদাহ…..Superhit | নাম ভূমিকায় ছিলেন, সৌমিত্র চ্যাটার্জি, যীশু সেনগুপ্ত, অনুরাধা রায়, সাবিত্রী চ্যাটার্জি, রিমঝিম গুপ্ত, এবং জ্ঞানেশ মুর্খার্জি’।
‘বাবু’ আপনি ওই আকাশের তারা হয়ে আর্শীবাদ করুন ও পথ দেখান আমায়। ভালো থাকুন।

Related Articles

Back to top button
Close