fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

নতুন করে কোনও সংঘর্ষ চাই না: ভারতের কাছে মাথা নুইয়ে বার্তা চিনের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের সঙ্গে নতুন করে কোনও ঝামেলায় জড়াতে চাইছে না চিন। এমনই বার্তা চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও লিঝিয়াং-এর। বুধবার চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র স্পষ্ট জানিয়েছেন যে, গালওয়ান ভ্যালির ইতিহাস বলছে, এই উপত্যাকা চিনের অংশ ছিল। তাই থাকবে। এই কথা বলার পরেই ঝাও লিঝিয়াং জানিয়েছেন যে, ভারতের সঙ্গে নতুন কিরে কোনোও সংঘর্ষ চাইছে না চিন।

আগেই চিনা বিদেশমন্ত্রক জানিয়ে ছিল সোমবার নাকি পর পর দুবার সীমান্ত পার করে চিনের দিকে ঢোকার চেষ্টা করে ভারতীয় সেনা। চিনের সেনাবাহিনীকে উত্যক্ত করা হয়। শুধু তাই নয়, চিনের বাহিনীর উপর আক্রমণ করা হয় বলেও ভারতীয় সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে মারাত্মক অভিযোগ তোলা হয়।

গত দেড় মাস ধরে সংঘাত চলছে ভারত-চিন সীমান্তে। একের পর এক বৈঠকেও কোনও সমাধান মেলেনি। তবে এবার চিন স্পষ্টই জানিয়ে দিয়েছে যে, আর কোনও সংঘর্ষে যেতে চাইছে না তাঁরা। চিনের বিদেশমন্ত্রকের পরামর্শ, ভারতীয় সেনা যেন নিজেদের সীমান্তের মধ্যেই অবস্থান করে।

এদিকে, লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার কাছে ভারতীয় ভূখণ্ডে তাঁবু খাটিয়েছিল চিনা সেনা। সেই তাঁবু সরানোর কথা বলতেই ভারতীয় সেনার সঙ্গে তীব্র বাদানুবাদ শুরু হয়ে যায় চিনা সেনার। মুহূর্তে সেই বাদানুবাদ হাতাহাতিতে পৌঁছে যায়। এরপরই লোহার রড, পাথর নিয়ে ভারতীয় সেনাবাহিনীর উপর হামলা চালায় চিনা সেনা বলেই জানা গেছে।

দু’পক্ষের সংঘর্ষে কমপক্ষে ২০ জন ভারতীয় সেনা-জওয়ান নিহত হয়েছেন। সোমবার রাতে লাদাখের গালওয়ানে ভারত ও চিন সেনার মধ্যে গুলি বিনিময় হয়নি বলেই ভারতীয় সেনার তরফে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে। জানা গিয়েছে, ভারতীয় ভূখণ্ডে চিনা সেনা তাঁবু খাটিয়েছিল।

সেই তাঁবু সরানোর কথা বলতে যেতেই চিনা সেনাবাহিনী ভারতীয় সেনাদের উপর পাথর ছুঁড়তে শুরু করে। অপেক্ষাকৃত বেশ উঁচু জায়গায় আগে থেকেই জড়ো ছিল সেনা।ফলে ভারতীয় তরফে ক্ষয়ক্ষতি বেশি হয়।

Related Articles

Back to top button
Close