fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

লকডাউন ভঙ্গ করায় মালয়েশিয়ায় গ্রেফতার ১৫ হাজার

কুয়ালালামপুর, (সংবাদ সংস্থা): লকডাউন পালনে কঠোরতা দেখাচ্ছে মালয়েশিয়া। লকডাউনের সরকারি নির্দেশিকা ভঙ্গ করায় ১৫ হাজারের বেশি মানুষকে গ্রেফতার করেছে মালয়েশিয়া প্রশাসন।

গত ১৮ মার্চ থেকে লকডাউন চলছে মালয়েশিয়ায়। কিন্তু, গত ১৪ এপ্রিল, মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব ঘোষণা দেন, ‘লকডাউন অমান্যকারীদের এবার কোনো সতর্কতার নোটিশ না দিয়ে সরাসরি রিমান্ডে নিয়ে আদালতে সোপর্দ করবে পুলিশ।’ সেইসাথে তিনি জানান, ‘আমরা দেখছি, লোকজন এমন আচরণ করছে যেন তারা আইনের তোয়াক্কাই কিংবা ভয় করছে না। তারা প্রতিনিয়ত চলাচলের নির্দেশনা (এমসিও) লঙ্ঘন করছেন।’ প্রতিরক্ষামন্ত্রীর এই মন্তব্যের পরেই ১৫ হাজার মানুষ গেপ্তার হয়েছেন গত দু’সপ্তাহে।

এদিকে, লকডাউন ভঙ্গ করার জন্য লোকজনকে গ্রেফতারের সমালোচনা করছে মানবাধিকার সংগঠনগুলি। লকডাউনের নিয়ম ভঙ্গকারী লোকজনকে গ্রেফতার করে জেলে না পাঠানোর জন্য মালয়েশিয়াকে আহ্বান জানিয়েছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ।

সম্প্রতি লকডাউন ভঙ্গ করায় গ্রেফতার হওয়াদের মধ্যে একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রয়েছেন। তিনি তার প্রেমিকের জন্মদিনে কেক উপহার দেওয়ার জন্য লকডাউন ভঙ্গ করে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন। তাকে সাতদিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে এক হাজার মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত জরিমানা করা হয়েছে। যদি তিনি জরিমানা না দিতে পারেন তবে তাকে হয়তো আরও দু’মাস কারাদণ্ড ভোগ করতে হতে পারে। এই প্রসঙ্গে, হিউম্যান রাইটস ওয়াচের এশিয়া বিষয়ক পরিচালক ফিল রবার্টসন বলছেন, মালয়েশিয়া সরকারকে বুঝতে হবে যে, কোভিড-১৯ থেকে জনগণকে বাঁচাতে হলে কারাগারে জনসংখ্যা কমাতে হবে। আরও বেশি লোকজনকে কারাগারে পাঠালে পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যাবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, মহামারী করোনায় এখন পর্যন্ত  মালয়েশিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫ হাজার ৮৫১ জন। প্রাণ হারিয়েছেন, ১০০ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪ হাজার ৩২ জন।

Related Articles

Back to top button
Close