fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

কলকাতা পুলিশে করোনায় প্রথম মৃত্যু কনস্টেবলের! মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৯৫ জন

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যু হল কলকাতা পুলিশের এক কনস্টেবলের। শনিবার কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যু হয় মধ্যবয়সী ওই পুলিশ কনস্টেবলের। লালবাজার সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, শনিবার পর্যন্ত কলকাতা পুলিশের মোট ১৯৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। যদি তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গিয়েছেন ৯০ জন।
লালবাজার সূত্রের খবর, ওই পুলিশ কনস্টেবল প্রথমে সাউথ ডিভিশনের ডিআরও অফিসে কর্তব্যরত ছিলেন। সেখান থেকে তাকে ডেপুটেশনে শেক্সপিয়ার সরণি থানায় ডিউটি দেওয়া হয়েছিল। ওই পুলিশ কনস্টেবলের বাড়ি শিলিগুড়ির ফাসিঁদেওয়া থানা এলাকায়।
স্ত্রী অসুস্থ থাকার জন্য গত ২৮ মে কলকাতা থেকে বাসে করে বাড়ি যান। ১ জুন শিলিগুড়ি থেকে ফিরে ডিউটিতে যোগ দেন। সেদিন তাঁর শরীরে কোনও উপসর্গ না থাকলেও থানার অন্যান্য পুলিশকর্মীদের সঙ্গেই তার করোনা টেস্ট হয়। পরদিনই তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ৩ জুন টেস্ট রিপোর্ট এলে জানা যায় ওই পুলিশ কনস্টেবল করোনা পজিটিভ।
 তারপর থেকে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালেই তার চিকিৎসা চলছিল। কিন্তু শনিবার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান। কলকাতা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার (সদর) শুভঙ্কর সিনহা সরকার ওই কনস্টেবলের করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর কথা স্বীকার করেছেন।
এদিকে, শনিবার পর্যন্ত কলকাতা পুলিশে মোট করোনা আক্রান্ত কর্মীর সংখ্যা প্রায় ডাবল সেঞ্চুরির পথে পৌঁছে গিয়েছে। লালবাজার জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত ১৯৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তবে প্রায় ৯০ জন সুস্থ হয়ে ফিরে বেশিরভাগই ডিউটিতেও যোগ দিয়েছেন। ফলে আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে বাড়তে থাকলেও সুস্থতার পরিসংখ্যান স্বস্তিতে রেখেছে লালবাজারকে। তবে কনস্টেবলের মৃত্যু কিছুটা চাপে ফেলল লালবাজারকেও। কারণ, সম্প্রতি পুলিশ ট্রেনিং স্কুল, গড়ফা থানা ও চতুর্থ ব্যাটেলিয়ানে যে নজিরবিহীন কর্মী বিক্ষোভ দেখা গিয়েছিল তার কারণও ছিল করোনা সংক্রান্ত বিষয়। যদিও তারপর ব্যবস্থা নিয়ে সব পুলিশকর্মীর করোনা টেস্ট বাধ্যতামূলক করাতেই এই বিপুল হারে সংক্রমণ ধরা পড়েছে বলে দাবি লালবাজারের।

Related Articles

Back to top button
Close