fbpx
কলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মহামারীতেই মায়ের আগমন? জল্পনায় পরিকল্পনা

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: মহামারীর মধ্যে মায়ের আগমন! সারা বছরের অপেক্ষার পর বাঙালির সব থেকে বড় উৎসব দুর্গাপূজো। করোনার জেরে কি এবার তাও প্লান হতে চলেছে?

প্রশ্নটা উঠছেই কারন বাজেট পঞ্চাশ শতাংশ নামিয়ে ফেলার পর ও কেউ ভাবছেন, সে টুকুও রাখা যাবে কিনা। কলকাতার নামী, বেনামী পূজা কমিটি গুলোর এখন এমনই মনোভাব। বাতিল হয়েছে একাধিক বায়নাও কারণ বড় পূজো করা এক প্রকার অসম্ভব । জনৈক ক্লাব কর্তা  জানাচ্ছেন “পরিস্থিতির ওপর সব নির্ভর। মা যদি ঘট পূজা চান, তবে তাই হবে”। করোনার জেরে কর্পোরেটদের তরফে স্পনসরশিপে ব্যাপক ঘাটতির আশংকা যেমন রয়েছে, তেমনি প্রস্ন রয়েছে স্যোশাল ডিস্টান্সিং তখন কি অবস্থায় থাকবে। মানুষ কে ভীড় করতে দেওয়া হবে কিনা। এই সব মিলিয়ে পূজার বাজেট ছেটে ফেলেছেন পুজাকর্তারা। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক এবছরে কার বাজেট কতটা ছাঁটা হল।

 

একডালিয়া এভারগ্রীন ৫০ শতাংশ ছাটতে চলেছেন । চেতলা অগ্রনী ৮০ শতাংশ ছাটতে চলেছেন। বালিগঞ্জ কালচারাল ৬০ শতাংশ ছাঁটতে চলেছেন । ত্রিধারা সম্মেলনী ৭০ শতাংশ ছাঁটতে চলেছেন। শ্রীভুমি স্পোর্টিং বাজেট নিয়ে মিটিং হয়নি। নাকতলা উদয়ন সংঘ ৫০ শতাংশ ছাঁটতে চলেছেন । পঁচানব্বই পল্লী ৭৫ শতাংশ ছেঁটেছেন । যোধপুর পার্ক সার্বজনীন পূজা নিয়ে মিটিং হয়নি । কলেজ স্কোয়ার ৯০ শতাংশ ছাঁটতে চলেছেন ।

এই সবকিছু পর আগামী দিনে কোথায় দাঁড়াবে করোনা পরিস্থিতি, সে কথা মাথায় রেখেই পরিকল্পনা করছেন শহরের শারোদৎসব উদ্যোক্তারা।

Related Articles

Back to top button
Close