fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কাটোয়ায় রাস্তা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনে নামল DYFI, রাস্তায় ধান গাছের চারা পুঁতে প্রতিবাদ

দিব্যেন্দু রায়,কাটোয়া: কাটোয়া-২ ব্লকের পলসোনা অঞ্চলের কোয়ারা গ্রামের রাস্তা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনে নামল সিপিএমের যুব সংগঠন ডি ওয়াই এফ আই। রবিবার রাস্তায় ধান গাছের চারা পুঁতে প্রতিবাদ জানান সংগঠনের সদস্যরা ।

তাঁদের অভিযোগ, কোয়ারা গ্রামের ২ নম্বর সংসদ এলাকার ডাঙ্গাপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে বটতলা প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত প্রায় ২ কিলোমিটার কাঁচা রাস্তাটি দীর্ঘদিন বেহাল অবস্থায় পড়ে রয়েছে। সংস্কারের জন্য বারবার স্থানীয় পঞ্চায়েত ও প্রশাসনের কাছে তদ্বির করেও কোনও কাজ হয়নি  । অবিলম্বে রাস্তা সংস্কার করা না হলে তাঁরা বৃহত্তর আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

 

 

সিপিএমের যুব সংগঠন ডি ওয়াই এফ আইয়ের কাটোয়া-২ আঞ্চলিক কমিটির অন্তর্গত পলসোনা ইউনিটের সদস্য অমিত কুমার মন্ডল, বাবর আলী সেখ ও অমিত মুখার্জীরা জানিয়েছেন,’ দীর্ঘ ৮-৯ বছর ধরে রাস্তাটিতে এক গাড়ি মোড়াম ফেলা হয়নি। ফলে রাস্তা জুড়ে খানাখন্দে ভর্তি হয়ে গেছে । বৃষ্টি হলে রাস্তায় এক হাঁটু জলকাদা পেরিয়ে যেতে হয় গ্রামবাসীদের। এদিকে লাগাতার বৃষ্টি হচ্ছে । ফলে ছোট ছোট পড়ুয়ারা স্কুলে যেতে গিয়ে সমস্যায় পড়ছে।

 

 

রাত বিরেতে কেউ অসুস্থ হয়ে পড়লে  স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যেতে গিয়ে বিপাকে পড়তে হচ্ছে রোগীর পরিবারকে । তাঁদের অভিযোগ, ‘ রাস্তাটি সংস্কারের দাবি জানিয়ে ইতিপুর্বে একাধিকবার পঞ্চায়েত অফিসে ,ব্লক অফিসে লিখিত আবেদন জানিয়েছি । কিন্তু কোনও কাজ হয়নি। তাই এদিন আমরা আন্দোলনে নামতে বাধ্য হয়েছি ।”

 

 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এদিন সিপিএমের যুব সংগঠনের বেশ কিছু সদস্য প্রথমে কোয়ারা গ্রাম ঢোকার মুল রাস্তা অবরোধ শুরু করে দেন। প্রায় আধ ঘন্টা অবরোধ চলার পর তাঁরা রাস্তাতে ধান গাছের চারা পুঁততে শুরু করেন। পাশাপাশি রাস্তাতে রাসায়নিক সারও ছেঁটান আন্দোলনকারীরা । এদিকে রাস্তার বেহাল অবস্থার কথা স্বীকার করে পলসোনা পঞ্চায়েতের প্রধান সুপ্রিয়া ঘোষ বলেন, “রাস্তাটির অবস্থা খুবই খারাপ জানি । তবে শুধু রাস্তা সংস্কার করলেই হবে না রাস্তার দু’পাশে নিকাশি নালা নির্মানও করতে হবে ৷  কিন্তু অত বড় রাস্তার কাজ পঞ্চায়েতের কোনও স্কীমে করা  সম্ভব নয়। আবার একটু একটু করে কাজ করলে স্থানীয়রা মানবে না । তাই ওই রাস্তাটি জেলা পরিষদ স্কীমে ধরানো আছে। এখন যতদিন না অনুমোদন হচ্ছে তার আগে কিছু বলতে পারবো না ।”

Related Articles

Back to top button
Close