fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার তৃণমুল সংসদ দিব্যেন্দু অধিকারীকে প্রাণ নাশের হুমকি , তদন্তে পুলিশ

মিলন পণ্ডা, পূর্ব মেদিনীপুর: তমলুকের সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারীকে ফোনে প্রাণনাশের হুমকির ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালো গোটা পূর্ব মেদিনীপুর জেলায়।সাংসদের দুটি মোবাইলে ফোন থেকে উড়ো ফোনে হুমকী দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। আপনাকে রাজনৈতিক ভাবেই খুন করা হবে দিল্লীর বাংলোতে। এমনটাই ফোনে করে হুমকি দেওয়া হয় সাংষদকে। এই ঘটনার পরই কাঁথি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পুলিশ সুপার ইন্দিরা মুখার্জিকে বিষবটি জানান। ইতিমধ্যে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।এর আগে তমলুকের সাংষদ দিব্যেন্দু অধিকারী হলদিয়া ও তমলুক থেকে ফেরার সময় একাধিকবার গাড়ির উপর হামলার ঘটনা ঘটে ছিল। যেমন কয়েকবছর আগে হলদিয়া থেকে নির্বাচনী কর্মসূচী শেষ করে কাঁথিতে ফেরার সময় ট্রেলারের ধাক্কায় আহত হন তমলুকের সাংষদ তথা পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক দিব্যেন্দু অধিকারী।

আর পড়ুন: ডিভোর্সের মামলা নিয়ে বচসা, স্ত্রী- শাশুড়িকে গুলি করে খুন করে আত্মঘাতী যুবক, খোঁজ মিলল সন্তানের

ঘটনাটি ঘটে হলদিয়া–মেচেদা ৪১ নং জাতীয় সড়কে ভবানীপুর থানা এলাকায়।দুর্ঘটনা গ্রস্ত গাড়ির চালককে গ্রেফতার করে। এমনকি বছর খানেক আগে এক যুবক ছুরি হাতে সাংষদ দিব্যেন্দু অধিকারীর বাড়িতে পৌঁছে যায়। পুলিশ তৎপরতার তাকেও গ্রেফতার করে। এবার ফের ফোনে হুমকীর ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। এবিষয়ে সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী জানান হুমকী ফোন এসেছিল।থানায় অভিযোগ জানানো হয়েছে। পুলিশ প্রশাসন তদন্ত করবে।তমলুকের সাংষদকে এই হুমকিতে প্রশাসনিক মহলেও ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে।কাঁথি মহাকুমা পুলিশ আধিকারিক অভিষেক চক্রবর্তী বলেন একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। পুরো ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। মোবাইল ফোনে টাওয়ার লোকেশান সূএ ধরে গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close