fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

জেলায় একদিনে করোনা আক্রান্ত ১২, চিকিৎসক ও নার্সদের লালারস সংগ্রহ করে পরীক্ষা

east midnapureপূর্ব মেদিনীপুর জেলায় এক লাফে করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্য বেড়ে হল ১২ জন।আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য পাঁশকুড়া করোনা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। দুই করোনা আক্রান্ত চিকিৎসাধীন থাকার কারনে কাঁথি মহাকুমা হাসপাতাল স্যানিটাইজ করার পাশাপাশি হাসপাতালের চিকিৎসক ও নার্সদের লালারস সংগ্রহ করে পরীক্ষা জন্য পাঠানো হয়।

 

প্রসঙ্গত, গত ১৭ জুন দুইজন মাথার যন্ত্রনা ও জ্বর নিয়ে কাঁথি হাসপাতালের ভর্তি এদের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এলে ২০ জুন হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। মঙ্গলবার রাতেই দুইজনের করোনা ভাইরাস আক্রান্ত বলে জানিয়ে স্বাস্থ্যদফতর। তারপরেই নড়েচড়ে বসে কাঁথি হাসপাতাল কতৃপক্ষ। পাশাপাশি পরিবারের সদস্যদের লালারস সংগ্রহ করে পরীক্ষা জন্য পাঠানো হয়। পরিবারের সদস্যদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

 

স্বাস্থ্য দফতর সুত্রে জানা গিয়েছে যে, কাঁথি পুরসভা এলাকায় দুইজন বাসিন্দা, কাঁথি ১ ও ২ ব্লকের দুইজন বাসিন্দা, এগরা মহাকুমা তিনজন বাসিন্দা, তমলুক মহকুমা এলাকায় তিনজন বাসিন্দা ও হলদিয়া মহাকুমা দুইজন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হন। আক্রান্তদের মধ্যে বেশিরভাগ পরিয়ারী শ্রমিক। মঙ্গলবার রাতে রির্পোটের করোনা ভাইরাস আক্রান্ত বলে জানিয়ে দেয় রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। রাতেই আক্রান্তের উদ্ধার করে পাঁশকুড়া বড়মা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। জেলার দিনের পর দিন করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্য বেড়ে চলছে। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক নিতাইচন্দ্র মণ্ডল বলেন, আক্রান্তদের চিকিৎসা জন্য পাঁশকুড়া করোনা হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। আক্রান্ত বেশি ভাগ পরিয়ারী শ্রমিক।

Related Articles

Back to top button
Close