fbpx
কলকাতাশিক্ষা-কর্মজীবনহেডলাইন

পরীক্ষার দিন ঠিক করতে সোমবার উপাচার্যদের সঙ্গে বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রী

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: আর মাত্র এক সপ্তাহ সময়। এর মধ্যেই রাজ্যকে দিনক্ষণ চূড়ান্ত করে জানাতে হবে কবে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নেওয়া হবে। তাই সেই নির্দেশ মতো এবার ময়দানে নামতে চলেছেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। সোমবার থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের নিয়ে বৈঠকে বসতে চলেছেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। পুজোর আগে কবে পরীক্ষা নেওয়া যায় কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় গুলিতে মূলত সেই দিনক্ষণ ঠিক করতেই বৈঠক হবে।
শুক্রবার নির্দেশ দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন সেপ্টেম্বরে না হলেও পুজোর আগেই পরীক্ষা নিতে হবে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় গুলিতে। সেইমতো এক সপ্তাহের মধ্যে কবে পরীক্ষা নেওয়া যায় সে বিষয়ে রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় কে। অনলাইন বা অফলাইনে পরীক্ষার বিষয়টিকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। আইনে পরীক্ষা হলে সে ক্ষেত্রে যাকে পরীক্ষার্থীদের বাড়ির কাছাকাছি সেন্টার পরে সেই বিষয়টি কেউ নজর দিতে বলা হয়েছে শিক্ষামন্ত্রীকে।
মুখ্যমন্ত্রীর এই নির্দেশ পাওয়ামাত্রই নড়েচড়ে বসেছে রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর। এদিন থেকেই পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়তে চলেছে রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলি। যদিও এই করোনা আবহে কীভাবে পরীক্ষা নেওয়া হবে তা এখনও নির্দিষ্ট করে জানানো হয়নি। তবে রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলির পরীক্ষা পদ্ধতির বদল হবে বলেই জানা যাচ্ছে। অনলাইন বা অফলাইন দুই পদ্ধতিতেই পরীক্ষা নেওয়ার ভাবনাচিন্তা শুরু হয়েছে। প্রসঙ্গত, অফলাইন বা অনলাইন পরীক্ষার বিষয়টি নির্দেশিকাতেই উল্লেখ করেছিল ইউজিসি। অন্যদিকে রাজ্যের তৃণমূল প্রভাবিত কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সংগঠন ওয়েবকুপা ইউজিসির এই নির্দেশিকার বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছিল। সংগঠনের তরফে অধ্যাপক কৃষ্ণকলি বসু জানিয়েছেন, “রাজ্য সরকার চাইলে আমরা পরীক্ষা সংক্রান্ত পরামর্শ দেব। বিদেশে করোনা পরিস্থিতিতে ‘ওপেন বুক এক্সাম’ নেওয়া হচ্ছে। ইউজিসি’র কাছে আমাদের রাজ্য একই প্রস্তাব পাঠাতে পারে।”

Related Articles

Back to top button
Close