fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সম্পত্তির লোভে ছেলে-বৌমার কাছে অত্যাচারীত, পুলিশের দ্বারস্থ বৃদ্ধ মা-বাবা

শ্যাম বিশ্বাস, উত্তর ২৪ পরগনা: অমানবিক ঘটনার সাক্ষী থাকল উত্তর ২৪ পরগনার হাড়োয়া। সম্পত্তি না লিখে দেওয়ার জন্য বৃদ্ধ বাবা-মাকে মারধর, অনাহারে রাখার অভিযোগ ছেলে-বৌমার বিরুদ্ধে। উত্তর চব্বিশ পরগনার বসিরহাট মহকুমা হাড়োয়া থানার সোনাপুকুর শংকরপুর গ্রামের ঘটনা। বাবা হেমন্ত ঘোষাল, বয়স ৬২। মা সবিতা ঘোষাল বয়স ৫৬। তাঁদের বেশকিছু মেছো ভেড়ি রয়েছে। সেই জমি লিখে দেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করত তার একমাত্র ছেলে বছর ৩৫-এর রবিন ঘোষাল এবং বৌমা ৩২-এর পিংকি ঘোষাল।

বেশ কয়েক বছর ধরে  বৃদ্ধ বাবা মায়ের উপর মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন চালানোর পাশাপাশি তাঁদের অভুক্ত করে রাখার অভিযোগ উঠছে ছেলে-বৌমার বিরুদ্ধে। এই গন্ডগোল কয়েক বছর ধরে চলছিল। এমনকি বাবাকে মারধর করে বলে ছেলে-বৌমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে বৃদ্ধ বাবা-মা।

আরও পড়ুন- ফের মুখ্যমন্ত্রী হবেন নীতীশ কুমার, ঘোষণা উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীল মোদির

মঙ্গলবার রাতে অত্যাচারের মাত্রা বেড়ে যায়। বৃদ্ধ বাবা-মাকে বেধড়ক মারধর করে ছেলে ও বৌমা।  সেই অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে হাড়োয়া থানার পুলিশের দ্বারস্থ হয় বৃদ্ধ-বৃদ্ধা। একদিকে শারীরিক, মানসিক অত্যাচার অন্যদিকে দীর্ঘদিন ধরে অনাহারে রাখার অভিযোগ ছেলে রবিন, বৌমা পিংকির বিরুদ্ধে। এই অভিযোগের ভিত্তিতে হাড়োয়া থানার পুলিশ আধিকারিক বাপ্পা মিত্র পুরো ঘটনার তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছে।

 

Related Articles

Back to top button
Close