fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

বাড়ি স্বামীর নামে না থাকলেও গার্হস্থ্য হিংসার কারণে বউকে বের করে দেওয়া যাবে না, রায় সুপ্রিম কোর্টের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: গার্হস্থ্য হিংসার কারণে কোনও বাড়ির বউকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া যাবে না, এমনই রায় দিল দেশের শীর্ষ আদালত। সে বাড়ি যদি স্বামীর পরিবারের অন্য কারও নামে থাকে, তবেও সেই অধিকার থেকে বঞ্চিত হবেনা বাড়ির বউ। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অশোক ভূষণ, আর সুভাষ রেড্ডি এবং এমআর শাহের বেঞ্চ বৃহস্পতিবার স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে যে, গার্হস্থ্য হিংসার আইন অনুসারে বাড়ির বউ-এর শ্বশুরবাড়িতে বসবাস করার অধিকার রয়েছে। সুপ্রিম কোর্ট রায় দিয়েছে যে, বাড়ির বউকে যদি পারিবারিক অশান্তির কারণে শ্বশুরবাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয়, তাহলে ‘শেয়ার্ড হাউসহোল্ড’-এর জোরে তিনি সেখানে থাকার অধিকার দাবি করতে পারেন।

[আরও পড়ুন- নির্বাচনের আগেই করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হলেন বিহারের পঞ্চায়েত মন্ত্রী]

তিন বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছে যে, এদেশে গার্হস্থ্য হিংসা প্রতিনিয়ত ঘটছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মহিলারা অনেক সময় মামলা দায়ের করেনা। অনেকসময় বাড়ির বউকে অত্যাচার করে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার ঘটনাও ঘটে।

প্রসঙ্গত, ২০০৫ সালের গার্হস্থ্য হিংসা আইনে ‘শেয়ার্ড হাউসহোল্ড’-এর উল্লেখ রয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে যে, স্বামীর কোনও আত্মীয় বা যৌথ পরিবারের নামেও যদি বাড়ির মালিকানা থাকে, তাহলেও এই অধিকার দাবি করতে পারবেন মহিলারা। কিন্তু তবে সেক্ষেত্রে কিছু শর্ত রাখা হয়েছে। সেই শর্ত অনুযায়ী বিয়ের পর থেকে শ্বশুরবাড়িতে দীর্ঘ সময় কাটাতে হবে ওই বধূকে। আর সেই প্রমাণ দেখাতে হবে বাড়ির বউকে। তবেই ‘শেয়ার্ড হাউসহোল্ড’ হিসেবে বিবেচিত করা হবে।

 

Related Articles

Back to top button
Close