fbpx
হেডলাইন

হুগলি-চুঁচুড়া পুরসভায় বাতিল হল স্থায়ী কর্মী নিয়োগ প্রক্রিয়া 

তাপস মণ্ডল, হুগলি: পুরসভায় স্থায়ীকর্মী নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিলের চিঠিকে কেন্দ্র করে ফেটে পড়লেন অস্থায়ী কর্মীরা।শুক্রবার হুগলি-চুঁচুড়া পুরসভায় স্থায়ী কর্মী নিয়োগের বিষয়টি বাতিল করা হয়েছে। এই মর্মে সরকারি একটি নির্দেশ আসে।
উল্লেখ্য, সম্প্রতি হুগলি-চুঁচুড়া পুরসভায় ৭৬ জন স্থায়ী কর্মী নিয়োগের উদ্যোগ নেওয়া হয়। প্রায় পঞ্চান্ন জন স্থায়ী কর্মীকে পুরসভার তরফে নিয়োগ করা হয়েছিল। বাকি শূন্যপদেও কর্মীদের নিয়োগের প্রক্রিয়া চলছিল।

প্রসঙ্গত, হুগলি-চুঁচুড়া পুরসভায় কর্মী নিয়োগকে কেন্দ্র করে ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। অভিযোগ ওঠে, পরীক্ষ্যার্থীরা পরীক্ষার সাদা খাতা জমা দিয়েছেন। বাড়িতে উত্তরপত্র পাঠিয়ে সেই খাতার উত্তর লেখানো হয়। এই অভিযোগ তুলে সরব হয়েছেন পুরসভার বোর্ড অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর তথা বিদায়ী ভাইস চেয়ারম্যান অমিত রায়। পাশাপাশি পুরসভায় যে সমস্ত অস্থায়ী কর্মী যারা ২৫ বছর কেউ ৩০ বছর কাজ করছেন। তারা অভিযোগ করে বলেন, আমরা এত বছর পুরসভায় কাজ করছি। আমরা কেউ স্থায়ী চাকুরী পেলাম না। কিন্তু চাকুরী পেলেন যারা তারা কেউ প্রাক্তন কাউন্সিলর, কেউ কাউন্সিলরদের আত্মীয় পরিজন। এই নিয়ে আমাদের আন্দোলন চলছিল। অবশেষে এদিন ওই নিয়োগ বাতিল হয়েছে বলে পুরসভায় চিঠি এসেছে।
পুরসভার বোর্ড অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর তথা বিদায়ী ভাইস চেয়ারম্যান অমিত রায় বলেন, সাংসদ কল্যান বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই এই নিয়োগে দূর্নীতির অভিযোগ তুলে নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিলের জন্যে পুরমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানান। এদিন বাতিলের চিঠি এসেছে। এর থেকে প্রমানিত দল দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেয়না।
যদিও হুগলি-চুঁচুড়া পুরসভার বোর্ড অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর তথা বিদায়ী চেয়ারম্যান গৌরীকান্ত মুখোপাধ্যায় বলেন, আমরা পুরসভায় নিয়োগ বাতলের চিঠি পেয়েছি। সুতরাং পুরসভার নিয়োগ প্রকৃয়া বাতিল হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close