fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কুকুরকে পিটিয়ে মারার ঘটনায় উত্তেজনা বারাসতে, ক্ষুব্ধ পশুপ্রেমীরা

শ্যাম বিশ্বাস, উওর ২৪ পরগনা: কুকুরকে পিটিয়ে মারার ঘটনায় ফের সামনে এল বর্বরতার ও নৃশংসতার চিহ্ন। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য রয়েছে গোটা এলাকাজুড়ে।  সোমবার রাতে রাস্তার একটি ক্ষিপ্ত কুকুর একাধিক লোককে কামড়াতে শুরু করলে এলাকার আতঙ্কিত লোকজনও ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে । দলবেঁধে কুকুরটিকে পিটিয়ে থেঁতলে মারা হয় কিছুক্ষণের মধ্যেই। কিন্তু একদল অতি উৎসাহী জনতা কুকুরটি মরে যাওয়ার পরেও নৃশংস ভাবে মৃত কুকুরটিকে মারতে থাকে। নিহত প্রাণীর ওপরেও অত্যাচারে ক্ষুব্ধ বেশ কিছু মানুষ।

এই ঘটনার প্রতিবাদ করায় দু দলের মধ্যে বাদ বিবাদ ও ধাক্কধাক্কি শুরু হয়। এলাকাবাসী জানিয়েছে, কুকুরটি পাগল হয়ে অন্তত পাঁচজনকে কামড়েছে। তার ফলে মানুষ রাস্তার কুকুরটিকে মেরেছে।

স্থানীয় বাসিন্দা লক্ষ্মী ব্যানার্জি বলেন, যেভাবে কুকুরটি মানুষজনকে আক্রমণ করছিল তার ফলে মানুষ খেপে উঠে কুকুরটিকে পিটিয়ে মারে।
কিন্তু বেশ কিছু মানুষ আবার জনতার এরকম নৃশংস আচরণের পেছনে মানবিক শুভবুদ্ধির অভাব দেখতে পাচ্ছেন। তাঁরা জানিয়েছেন নিহত জীবটিকে ঘিরে পৈশাচিক উল্লাসের প্রতিবাদ করতে গিয়ে তাঁদের কুকুর নিধনকারীদের হাতে প্রাথমিকভাবে আক্রান্ত হতে হয়। তাই তাঁরা নিশ্চুপ হতে রাজি ছিলেন না।

নিজেদের বক্তব্যের সর্মথনে তাঁরা একটি ভিডিও ফুটেজ দেখিয়ে তাঁদের প্রতিবাদ করার কারণ জানিয়েছেন। ভিডিও ফুটেজে ঘটনার বেশ কিছু পরেও মৃত কুকুরের ওপরে একটানা প্রহার করার উল্লাসের প্রকাশ দেখা গেছে ।
পশুপ্রেমীদের মতে, উন্মত্ত কুকুর ও সাধারণ মানুষের একাংশের মধ্যে বিশেষ পার্থক্য নেই । পশুপ্রেমী সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বলশালী মানুষ নির্বিচারে, অনেক ক্ষেত্রেই কুকুরকে মারধর করে খেপিয়ে তোলে।

Related Articles

Back to top button
Close