fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পশ্চিম মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রাম জেলায় হাতির হামলায় ব্যাপক ফসলের ক্ষতি

সুদর্শন বেরা, পশ্চিম মেদিনীপুর: পশ্চিম মেদিনীপুর ঝাড়গ্রাম জেলাজুড়ে শুক্রবার হাতির হামলা অব্যহত রইল। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার শালবনি ব্লকের অন্তর্গত বনদপ্তর এর পিড়াকাটা রেঞ্চের অধীন ময়ূরকাটা এলাকায় ১৫ থেকে ২০টি দাঁতাল হাতি শুক্রবার সকাল থেকে তাণ্ডব শুরু করেছে। যার ফলে মাঠের পাকা ধান মাঠেই নষ্ট হতে চলেছে। হাতির হামলায় ওই এলাকায় ধান চাষের ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছেন এলাকার বাসিন্দারা। যেভাবে হাতি গুলি দাপিয়ে বেড়াচ্ছে তাতে আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন গ্রামবাসীরা। তাই পুজোর আনন্দ তাদের কাছে নিরানন্দে পরিণত হয়েছে।

গ্রামবাসীরা বিষয়টি বনদফতরকে জানিয়েছে। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার শালবনি ব্লকের পাশাপাশি মেদিনীপুর সদর ব্লকের বিভিন্ন গ্রামে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে দাঁতাল হাতি। এছাড়াও গড়বেতা, গোয়ালতোড় এলাকায় হাতি দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। যেভাবে পুজোর সময় হাতিগুলি দাপিয়ে বেড়াচ্ছে তাতে দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা করছেন এলাকার বাসিন্দারা। তবে বনদফতর গ্রামবাসীদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছে ।সেই সঙ্গে বনদপ্তর এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যাদের ফসলের ক্ষতি করেছে হাতি তাদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। তা সত্ত্বেও আতঙ্কে রয়েছেন এলাকার বাসিন্দারা। অপরদিকে ঝাড়গ্রাম জেলার সাঁকরাইল, ঝাড়গ্রাম ও জামবনি ব্লকজুড়ে হাতির হামলা অব্যাহত রয়েছে।

সাঁকরাইল ব্লক এর বেশ কয়েকটি গ্রামে প্রায় চল্লিশটি হাতি ঢুকে বৃহস্পতিবার রাত থেকে তাণ্ডব শুরু করেছে। পাশাপাশি ঝাড়গ্রাম জেলার ঝাড়গ্রাম ব্লকের গড়শালবনি এলাকায় কয়েকটি হাতি তাণ্ডব চালাচ্ছে। তেমনি ঝাড়খন্ড সীমান্তবর্তী ঝাড়গ্রাম জেলার জামবনি ব্লকের আমতলিয়া এলাকায় ১০ থেকে ১৫ টি হাতিতাণ্ডব চালাচ্ছে বলে গ্রামবাসীরা জানান। হাতির হামলার আশঙ্কায় গ্রামবাসীরা ঘর থেকে বের হওয়ার সাহস পাচ্ছে না। তাই পুজোর দিনগুলিতে হাতির হামলার আশঙ্কায় আতঙ্কে রয়েছেন দুই জেলার জঙ্গল ঘেরা গ্রাম গুলির বাসিন্দারা।

Related Articles

Back to top button
Close