fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

বিবাহবহির্ভূত যৌনতায় বহুকাল ধরে চলা শাস্তির অবসান হল এই দেশে

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: সৌদি আরবে আগে বিবাহবহির্ভূত যৌনতায় একটি খুঁটি বা কাঠের সঙ্গে হাত-পা বেঁধে রড বা লাঠি কিংবা চাবুক দিয়ে মার ছিল শাস্তি৷

এবার থেকে সেই শাস্তির অবসান হল।সৌদি আরবে অপরাধমূলক কাজে শাস্তির তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হল হাত-পা খুঁটির সঙ্গে বেঁধে মারধরকে৷ বহুকাল ধরেই সৌদি আরবে শাস্তির তালিকায় একাধিক বেআইনি শাস্তি রয়েছে, যা মানবাধিকার লঙঘন করে৷

সৌদি আরবের সুপ্রিম কোর্টের জেনারেল কমিশন সিদ্ধান্ত নিয়েছে, বেঁধে মারের পরিবর্তে হাজতবাস বা জরিমানা কিংবা দুটোই করা যেতে পারে৷ কিন্তু বেঁধে মার শাস্তিকে আর রাখা হবে না৷

সৌদি আরবে একাধিক অপরাধে বেঁধে মার দেওয়ার শাস্তি রয়েছে৷ এই নিয়ে একাধিক মানবাধিকার সংগঠন বহুবার সরব হয়েছে৷

একবার দেখে নেওয়া যাক কোন কোন অপরাধে এই শাস্তি দেওয়া হয়?

যেমন, প্রকাশ্যে নেশা, মহিলাদের হেনস্থা ও বিবাহবহির্ভূত যৌনসঙ্গমে বেঁধে মার দেওয়ার শাস্তি দেওয়া হয় সৌদি আরবে৷

উল্লেখ্য, সৌদি আরবে অন্যান্য শাস্তির মধ্যে রয়েছে, চুরি করলে অঙ্গচ্ছেদ বা হাত কেটে দেওয়া, খুন বা সন্ত্রাস হামলা দোষী সাব্যস্ত হলে প্রকাশ্যে মাথা কেটে দেওয়া৷ এই শাস্তিগুলি আপাতত বহালই থাকছে৷

Related Articles

Back to top button
Close