fbpx
দেশহেডলাইন

চরম অমানবিক! কর্ণাটকে প্রায় ৫০০ মিটার টেনে হিঁচড়ে কবর দিতে নিয়ে যাওয়া হল করোনায় মৃত ব্যক্তির দেহ

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ফের আরও একবার করোনায় মৃত ব্যক্তিদের শবের সঙ্গে চরম অমানবিক ও অসম্মানজনক ব্যবহার সামনে এলো। কিছুদিন আগে কবরের জন্য মাত্র একটি গর্ত খুঁড়ে করোনায় মৃত ৮ জনের দেহ একের পর এক ছুঁড়ে তার মধ্যে ফেলা হয়, কর্ণাটকের বল্লারির সেই ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হতেই দেশজুড়ে তীব্র নিন্দার ঝড় বয়ে গিয়েছিল। এবারও সেই কর্ণাটক। প্রায় ৫০০ মিটার টেনে হিঁচড়ে মাটিতে ঘষটে ঘষটে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে মৃতদের নিথর শরীর ৷ এবারও ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হতেই দেশজুড়ে হইচই শুরু হয়েছে।

এদিনের ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, একটি শবদেহের ব্যাগ পিপিই পরে থাকা কয়েকজন ব্যক্তি মাটিতে ঘষটে টেনে হিঁচড়ে কবর দেওয়ার জন্য নিয়ে যাচ্ছেন ৷ পিপিই পরিহিত ব্যক্তিরা স্বাস্থ্যকর্মী বলেই অনুমান করা হচ্ছে, কারণ করোনায় মৃত্যু হলে দায়িত্বপ্রাপ্ত স্বাস্থ্যকর্মীরা ছাড়া কেউ মৃতদেহ ছুঁতে পারেন না ৷ এই মর্মান্তিক ভিডিও দেখে ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন স্থানীয় মানুষ ৷ দোষীদের চিহ্নিত করে কঠোর শাস্তির আবেদন জানিয়েছেন তারা ৷

জানা গিয়েছে, করোনায় মৃতদের কবরের জন্য নির্দিষ্ট করা জায়গার পাশে যে গ্রাম রয়েছে সেখানকার বাসিন্দারা মৃতদেহ কবরের কাজে আপত্তি জানায়, তখন স্বাস্থ্যকর্মীরা মৃতদেহগুলি টেনে হিঁচড়ে গ্রামের বাইরে নিয়ে যান ৷ কিন্তু এই প্রক্রিয়ায় মৃতদের প্রতি যে অসম্মানজনক ব্যবহার করা হয়েছে তা নিন্দনীয় ৷ সেখানকার ডিএম এম কুলরমা রাও ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় দায়িত্বে থাকা কর্মীদের শোকজ নোটিস পাঠিয়েছেন ৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিওটি ভাইরাল হতেই রাজ্যজুড়ে নিন্দের ঝড় উঠেছে এবং ঘটনায় তদন্তের দাবি জানানো হয়েছে ৷

উল্লেখ্য, কর্ণাটকে বুধবার পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৬,৫১৪ ৷ রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ১২৭২ ৷ স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছে রাজ্যে এখনও করোনায় ২৫৩ জনের মৃত্যু হয়েছে ৷

Related Articles

Back to top button
Close