fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

নকল সোনার বাট ও রং করা দুষ্প্রাপ্য বুদ্ধমূর্তি উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক, ভাঙড়: নকল সোনার বাট ও রং করা বুদ্ধমূর্তিকে দুষ্প্রাপ্য মূর্ত বলে টোপ দিয়ে পূর্ব বর্ধমানের এক ব্যক্তির  কাছে থেকে ৪ লক্ষ টাকা হাতিয়ে তাঁকে মারধর করেছিল অভিযোগে ভাঙড়ের পদ্মপুকুরের বাসিন্দা এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করল ভাঙড় থানার পুলিশ।
তার বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে নকল সোনার বাঁট, তামার বাঁট, রং করা বুদ্ধ মূর্তি এবং নগদ ২৫হাজার টাকা। ধৃতের নাম আসগার মোল্লা। যদিও এই কাজের সঙ্গে যুক্ত আসগারের আর এক ভাই রেজ্জাক মোল্লা পলাতক। পুলিশ তার খোঁজ করছে। এই কাজে একটি বড়সড় চক্র কাজ করছে বলেও পুলিশের ধারনা। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পূর্ব বর্ধমানের জামালপুর থেকে জামালউদ্দিন মোল্লা নামের এক ব্যক্তিকে ৬ ইঞ্চি উঁচু ও প্রায় ১৮০০ গ্রাম ওজনের একটি বুদ্ধমূর্তি এবং ৬৮০ গ্রাম ওজনের একটি সোনালি রংয়ের বাঁট, ৪৮০ গ্রাম ওজনের একটি তামার বাঁট দেওয়ার প্রলোভন বিক্রি করার প্রলোভন দেখিয়ে ডাকা হয়। তিনি ওই সোনা  ও দুষ্প্রাপ্য ওই জিনিষগুলি ৪ লক্ষ টাকা দিয়ে কেনার জন্য সেখান থেকে আসেন।
ভাঙড়ের পারগাঁথি এলাকার মোস্তাফিজুর সর্দার তাকে নিয়ে পদ্মপুকুর এলাকার রেজ্জাক মোল্লা ও আসগার মোল্লার বাড়িতে নিয়ে আসে। অভিযোগ, তারা তাকে ওই নকল জিনিষগুলি দিয়ে তার কাছ থেকে ৪ লক্ষ টাকা কেড়ে নেয়। শুধু তাই নয়, ওই টাকা হাতানোর পর অভিযুক্তরা তার কাছ থেকে ওই নকল জিনিষগুলিও কেড়ে নেয়। তিনি প্রতিবাদ করলে তাঁকে মারধর করে তাড়িয়ে দেয়। এরপরেই জামালউদ্দিন পুলিশের শরনাপন্ন হন। তিনি ভাঙড় থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। শুক্রবার রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে রেজ্জাক মোল্লার বাড়ি থেকে ওই নকল জিনিষগুলি উদ্ধার করে। আসগার মোল্লাকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশ জানায়, একটি চক্র কাজ করছে বলে মনে করা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close