fbpx
দেশহেডলাইন

লকডাউনে কাজ হারিয়েছে পরিবার, ‘অনাহারে’ মৃত্যু শিশুকন্যার!

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা মোকাবিলায় দেশজুড়ে লকডাউন করা হয়। লকডাউনে কাজ হারিয়েছে অনেকেই। দেশজুড়ে তীব্র আর্থিক সংকট। লকডাউনে কাজ হারিয়ে খাবার জোটাতে পারেনি পরিবার। যার ফলে অনাহারে মৃত‍্যুবরণ করল পাঁচ বছরের এক শিশুকন্যা। অনাহারে ফলে জ্বর চলে আসে ওই খুদের। পয়সার অভাবে চিকিৎসাও হয়নি সময় মতো। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের আগ্রার বরেলি আহীর ব্লকের নগলা বিধিচন্দ গ্রামে।যদিও স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছেন, শিশুটির মৃত্যু হয়েছে জ্বর ও ডায়েরিয়ায়।

মৃত ওই শিশুর মা শীলা দেবী জানিয়েছেন, তিনি দিনমজুরি করে সংসার চালান। তাঁর স্বামীর শ্বাসকষ্ট রয়েছে। যার ফলে কাজ করতে পারেন না। কিন্তু লকডাউনের পর থেকে কাজ নেই শীলা দেবীর। গত এক মাস ধরে তাঁর বাড়িতে খাবার নেই। পাড়া-পড়শিদের সাহায্যে ১৫ দিন মতো খাবার জুটেছিল তাঁদের। কিন্তু এর পর গত সাত দিন ধরে বেঁচে থাকাই দায় হয়ে উঠেছিল ওই পরিবারের। শিশুটির মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার পরই স্থানীয় প্রশাসন ছুটে যায় তাঁদের বাড়িতে। চাল, ডাল-সহ সরকারি অনুদান পাঠানো হয় তাঁদের বাড়িতে। শীলা দেবী জানিয়েছেন, তাঁদের পরিবারে এখনও পর্যন্ত কারোর রেশন কার্ড হয়নি। তাই চাল-ডাল পায়না তাঁরা।

মৃত ওই শিশুর মা আরও জানান, ‘যে কোনও ধরণের কাজ করতে আমি রাজি আছি। যাতে আমি আমার পরিবারের মুখে অন্ন যোগাতে পারি। আমি আমার মেয়ের জন্য কোনও খাবার জোটাতে পারিনি। শেষে তিন দিনের জ্বরে তাকে হারাতে হল’।

এদিকে তীব্র আর্থিক সংকট তার উপরে বাড়িতে বিদ্যুতের বিল এসেছিল সাত হাজার টাকা। হতদরিদ্র পরিবার সেই টাকা শোধ দিতে পারেনি। ফলে মাস তিনে আগে বিদ্যুৎ বন্টন সংস্থা থেকে এসে লাইন কেটে দিয়ে যায়। এর আগে নোটবন্দির সময় শিশুর আট বছরের দাদাও না খেতে পেয়ে মারা যায়।

Related Articles

Back to top button
Close