fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সাহিত্য জগতে নক্ষত্র পতন, চলে গেলেন তিস্তাপারের বৃত্তান্ত-র লেখক দেবেশ রায়

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: সাহিত্য জগতে নক্ষত্র পতন। চলে গেলেন কিংবদন্তি লেখক দেবেশ রায়। তাঁর মৃত্যুতে শোকের ছায়া সাহিত্যজগতে। বৃহস্পতিবার রাত ১০টা ৫০ মিনিট নাগাদ কলকাতার একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে তাঁর মৃত্যু হয়। জানা গিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন এই সাহিত্যিক। ভার্টিগোজনিত সমস্যার কারণে শারীরিক ভারসাম্যে অভাবেও ভুগছিলেন তিনি।

বুধবার রাত্রিতে শ্বাসকষ্ট নিয়ে তিনি ভর্তি হয়েছিলেন তেঘরিয়া অঞ্চলের ঊমা নার্সিংহোমে। এইচডিইউ তে রেখে চলছিল চিকিৎসা। বৃহস্পতিবার দুপুরের পরে অবস্থার অবনতি হতে শুরু হয়। অবস্থা সঙ্কটজনক হওয়ায় চিকিৎসকরা তাঁকে ভেন্টিলেশনে নেন। এ দিন রাত দশটা পঞ্চাশ মিনিট নাগাদ তার মৃত্যু হয়।

সূত্রের খবর, শ্বাসকষ্ট থাকার কারণে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে নোবেল করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ছিল কিনা তা জানার জন্য। দেবেশ রায়ের স্ত্রী ও পুত্র আমেদাবাদের বাসিন্দা। মৃত্যু সংবাদ পেলেও লকডাউন জনিত কারণে দ্রুত কলকাতায় পৌঁছতে পারছেন না।

বাংলাসাহিত্যের প্রকৃত ছকভাঙা ঔপন্যাসিক হিসেবে পরিচিত ছিলেন দেবেশ রায়। তাঁর বেড়ে ওঠা উত্তরবঙ্গে। ১৯৭৯ সাল থেকে তিনি এক দশক পরিচয় পত্রিকা সম্পাদনা করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের সময় থেকেই প্রত্যক্ষ রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। রাজনীতির সূত্রেই চষে ফেলেছিলেন গোটা উত্তরবঙ্গ। শিখেছিলেন রাজবংশী ভাষাও।

কলকাতা শহরেও চুটিয়ে ট্রেড ইউনিয়ন করতেন, ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ ছিল শ্রমিকসমাজের সঙ্গে। ‘আহ্নিক গতি ও মাঝখানের দরজা’, ‘দুপুর’, ‘পা’, ‘কলকাতা ও গোপাল’, ‘পশ্চাৎভূমি’, ‘ইচ্ছামতী’, ‘নিরস্ত্রীকরণ কেন’, ও ‘উদ্বাস্তু’— এই আটটি গল্প নিয়ে দেবেশ রায়ের প্রথম গল্পের বই বেরিয়েছিল। তাঁর প্রথম উপন্যাস যযাতি।  তাঁর রাজনৈতিক বীক্ষার ছাপই পড়ে  সবচেয়ে বিখ্যাত উপন্যাস ‘তিস্তাপারের বৃত্তান্ত’ তে। উত্তরবঙ্গের জীবনের বহতা ধরা আছে এই উপন্যাসে। শ্রীরায় বাস্তববাদী উপন্যাসের প্রচলিত ছক থেকে সরে গিয়ে বহুস্বরকে নিয়ে আসেন। তিস্তা পাড়ের বৃত্তান্ত উপন্যাসটির জন্য তিনি ১৯৯০ সালে ভারতের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সাহিত্য সম্মান সাহিত্য অকাদেমি পুরস্কারে সম্মানিত হন তিনি।

তাঁর অন্যান্য লেখাগুলি হল, মফস্বলি বৃত্তান্ত, সময় অসময়ের বৃত্তান্ত, লগন গান্ধার, আত্মীয় বৃত্তান্ত, শিল্পায়নের প্রতিবেদন, দাঙ্গার প্রতিবেদন, খরার প্রতিবেদন, তিস্তাপুরাণ, আঙিনা, ইতিহাসের লোকজন, উচ্চিন্নো উচ্চারণ, একটি ইচ্ছা মৃত্যুর প্রতিবেদন, চেতাকে নিয়ে চীবর, জন্ম, তারাশংকর:নিরন্তর দেশ, নবেলজোড়, বেঁছে বততে থাকা, শিল্পায়নের প্রতিবেদন, মার-বেতালের পুরান, যুদ্ধের ভিতরে যুদ্ধ, সহমরণ, বরিশালের যোগেন মণ্ডল, দেবেশ রায়ের গল্প (৬ খণ্ড) (১৯৬৯), দুই দশক (ছোটগল্প সংকলন) (১৯৮২), দেবেশ রায়ের ছোটগল্প (১৯৮৮), স্মৃতিহীন বিস্মৃতিহীন (ছোটগল্প সংকলন) (১৯৯১), রবীন্দ্রনাথ ও তার আদি গদ্য (প্রবন্ধগ্রন্থ), সময় সমকাল (প্রবন্ধগ্রন্থ), উপন্যাস নিয়ে (প্রবন্ধগ্রন্থ), উপন্যাসের নতুন ধরনের খোঁজে (প্রবন্ধগ্রন্থ), শিল্পের প্রত্যহে (প্রবন্ধগ্রন্থ), উপনিবেশের সমাজ ও বাংলা সাংবাদিক গদ্য (প্রবন্ধগ্রন্থ), মানিক বন্দ্যোপাধ্যয়: নিরন্তর মানুষ (প্রবন্ধগ্রন্থ)।

Related Articles

Back to top button
Close