fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কৃষক বনধের ডাক! বাংলায় পথ থেকে রেল অবরোধ দিকে দিকে…

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্রের কৃষি আইনের বিরোধিতায় সরব কৃষকরা। দেশজুড়ে কৃষক বনধের ডাক! সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণভাবে ভারত বন্‌ধ করা হবে, দাবি ভারতীয় কিষাণ ইউনিয়নের মুখপাত্রের।বিক্ষোভ, অবরোধ, মিছিলে আন্দোলনের আঁচ কলকাতাতেও। যাদবপুর এইট বি বাসস্ট্যান্ডের কাছে বামপন্থী সংগঠনের জমায়েত। ধর্মতলায় মিছিল করেন বাম ছাত্র-যুব সংগঠন ডিওয়াইএফআইয়ের কর্মীরা। কলকাতার আইটি সেক্টের সেভাবে বনধের প্রভাব পড়েনি। খোলা রয়েছে অফিস। ভারত বনধে সকালের দিকে সেভাবে প্রভাব পড়েনি শহর কলকাতাতে। যদিও যাদবপুরে কিছু জায়গায় অবরোধ হয়েছে বলে খবর ছিল। যাদবপুরে বামেদের মিছিলে সুজন চক্রবর্তীকে দেখা যায়। তিনি বলেন ধর্মঘট সদর্থক। তবে যেহেতু কৃষকদের আন্দোলনের ক্ষেত্রে বেলা ১১ টা থেকে দুপুর ৩ টে পর্যন্ত বিশেষ কর্মসূচি রয়েছে, সেহেতু সেই সময় পরিস্থিতি ঘিরে উদ্বেগ থাকছে।

সকাল থেকেই রাজ্যের একাদিক জেলায় ভারত বনধের প্রবল প্রভাব পড়তে শুরু করে। মধ্যমগ্রাম থেকে শুরু করে যাদবপুর স্টেশন, বাংলার সর্বত্র এই ভারত বনধের প্রবল প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। এদিন ভারত বনধে তমলুকে নিমতৌড়িতে অবরোধ শুরু হয় বামেদের। কৃষিবিল প্রত্যাহারের দাবিতে আজ বাংলার বিভিন্ন জায়গায় রেল অবরোধ শুরু। রিষড়া, মধ্যমগ্রাম, যাদবপুর, উলুবেড়িয়া সহ এদিন একাধিক জায়গায় সকাল থেকেই বামেরা রেল অবরোধে নামে। বহু স্টেশনে রেল অবরোধের জেরে আটকে যায় লোকাল ট্রেন। যাদবপুরে ৪০ মিনিট রেল অবরোধের পর তা উঠে যায়। একই পরিস্থিতি রিষড়াতেও। যার জেরে সাধারণ মানুষ পড়েছেন বিপাকে।

আরও পড়ুন: চলছে কৃষকদের ডাকে ভারত বনধ, আইন-শৃঙ্খলা লঙ্ঘন হলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ বিহার সরকারের

উত্তরবঙ্গের একাধিক জায়গায় বাম কর্মী সংগঠনের প্রতিনিধিরা পুলিশের সামনেই পিকেটিং এ বসেন। এদিকে, মধ্যমগ্রামে যশোর রোড থেকে শুরু করে একাধিক জায়গায় শুরু হয় পথ অবরোধ। উত্তরবঙ্গের ধূপগুড়িতে বাস আটকে বামেরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। এদিন কৃষকদের ডাকা বনধের জেরে যেমন ভারত বনদ পালিত হচ্ছে, তেমনই বিজেপির উত্তরকন্যা অভিযানে কর্মীর মৃত্যুর প্রতিবাদে পালিত হচ্ছে উত্তরবঙ্গ বনধ। এমন এক পরিস্থিতিতে এদিন সকাল থেকেই আঁটোসাটো বন্দোবস্ত রয়েছে নিরাপত্তা ঘিরে। ভারত বনধ নিয়ে এমনিতেও কেন্দ্রের তরফে কড়া নিরাপত্তার আয়োজনের কথা জানানো হয়েছে।

 

Related Articles

Back to top button
Close