fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

নিজের মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেফতার বাবা

নিজস্ব প্রতিনিধি, খেজুরি (পূর্ব মেদিনীপুর): কথায় আছে রক্ষকই ভক্ষক। আর এমন ঘটনায় সাক্ষী রইল পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় খেজুরির টিকাশী এলাকায়। নিজের পনোরো বছরের মেয়েকে ধর্ষণ করল বাবা। স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার হলেন ধর্ষক স্বামী। বৃহস্পতিবার রাতে খেজুরি থানার পুলিশ ধর্ষক লক্ষন গিরি নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে। শুক্রবার অভিযুক্তকে কাঁথি মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক তার জামিন নাকচ করে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন।

 

 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, খেজুরি টিকাশি বাসিন্দা লক্ষন গিরি পেশায় আটো চালক ছিলেন। নিজের পনোরো বছরের মেয়ে স্থানীয় একটি স্কুলের নবম শ্রেণীর মেধাবী ছাত্রী ছিল। দিনের পর দিন নিজের মেয়েকে একাধিকবার ধর্ষণ করে বাবা লক্ষন বলে অভিযোগ। এই নারকীয় অত্যাচারের কথা মাকে জানালেও প্রথমে কোনওভাবেই গুরুত্ব দেয়নি। দিনের পর দিন নারকীয় অত্যাচার বাড়তে থাকায় অবশেষে প্রতিবেশীদের বিষবটি জানায় নাবালিকা মেয়ে। এই ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। গ্রামবাসীরা লক্ষনের বাড়িতে জড়ো হয়ে শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে।

 

 

ঘটনায় বেগতিক বুঝে লক্ষন এলাকা ছেড়ে চম্পট দেয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে নাবালিকার মা খেজুরি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নামে খেজুরি থানার পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে হেঁড়িয়া থেকে ধর্ষক বাবা লক্ষনকে গ্রেফতার করে। সেই সঙ্গে ধর্ষিতা নাবালিকার ছাএীর সরকারী হাসপাতালে ডাক্তারি পরীক্ষা করান।কাঁথি আদালতের বিচারক ধর্ষিতা নাবালিকার গোপন জবানবন্দি গ্রহণ করেন।

 

 

খেজুরি থানার ওসি সত্যজিৎ চানক বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পাশাপাশি ধর্ষিতা ছাএীর হাসপাতালে ডাক্তারি পরীক্ষা করানো হয়। ঘটনায় তদন্ত শুরু করা হয়েছে। ধৃত বাবা বিরুদ্ধে ধর্ষন ও পক্সো আইনে মামলার রুজু করেছে বলে খেজুরি থানা সূত্রে জানা গিয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close