fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

টানা বৃষ্টিতে ভেঙে পড়ল পঞ্চাশটি কাঁচা বাড়ি, খোলা আকাশের নীচে দিন কাটাচ্ছে অসহায় মানুষ

শান্তনু চট্টোপাধ্যায়, রায়গঞ্জ: কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে ভেঙে পড়েছে একাধিক কাঁচা বাড়ি। বাধ্য হয়ে খোলা আকাশের নীচে ত্রিপল টাঙিয়ে কোনওমতে দিন কাটাচ্ছেন রায়গঞ্জ ব্লকের ১১ নং বীরঘই গ্রামপঞ্চায়েতের প্রায় পঞ্চাশটি পরিবার।  পঞ্চায়েতে বারংবার জানিয়েও কোনও ত্রান মেলেনি বলে অভিযোগ করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত গ্রামবাসীরা।

উল্লেখ্য, প্রায় একসপ্তাহ ধরে টানা বৃষ্টি চলছে রায়গঞ্জ সহ জেলার বিভিন্ন প্রান্তে। রায়গঞ্জ ব্লকের একাধিক এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। ব্যাপক ক্ষতির মুখে মাঠের ফসল। এরই মধ্যে রায়গঞ্জ ব্লকের বীরঘই গ্রামপঞ্চায়েতের কানাইপুর, ঋষিপুর সহ কয়েকটি গ্রামে টানা বৃষ্টিতে ভেঙে পড়েছে পঞ্চাশ থেকে ষাটটি মাটির বাড়ি।

ফলে খোলা আকাশের নীচে ত্রিপল টাঙিয়ে কোনওমতে দিন কাটাচ্ছেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যরা। মমতাজ খাতুন নামে এক গ্রামবাসী বলেন, “টানা বৃষ্টিতে গ্রামের অনেকের বাড়ি সম্পূর্ণ ভেঙে পড়েছে। ছেলেপুলেদের নিয়ে ত্রিপল টাঙিয়ে কোনওমতে আছি। একটা করে ত্রিপল ছাড়া আর কিছুই পাইনি। প্রশাসনের কেউ আসেনি এখনও পর্যন্ত।”

[আরও পড়ুন- জমি বিবাদকে কেন্দ্র করে ভাইকে কোপালো ওপর ভাই‌]

মধু সোরেন নামে অপর গ্রামবাসী বলেন, “ঝড়-বৃষ্টিতে আমার একটি ঘর ভেঙে পড়েছে। নতুন করে বৃষ্টি শুরু হওয়ায় যেকোনো মুহূর্তে অন্য ঘরটিও ভেঙে পড়তে পারে। এই দুর্যোগের মধ্যে কোথায় থাকবো ভেবে পাচ্ছি না। প্রশাসন কোনও ব্যবস্থা নেয় নি।”

অন্যদিকে স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য মনসুর আলম বলেন, “প্রধান ও পঞ্চায়েত কর্তৃপক্ষকে পুরো বিষয়টি জানিয়েছি। কিন্তু তারা কোনও উদ্যোগ নিচ্ছে না। আপাতত অসহায় মানুষদের জন্য ত্রিপলের ব্যবস্থা করেছি। আবারও পর্যাপ্ত ত্রাণের জন্য প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলব।

 

Related Articles

Back to top button
Close