fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সিএএ ও এনআরসি করে বিজেপি নিজের কবর নিজেই খুঁড়েছে , ফিরহাদ হাকিম

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়  বর্ধমান:  লোকসভা ভোটের ভরা ডুবির পর বিধানসভা ভোটের আগে ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া ঘাসফুল শিবির। ভোট ব্যাংক বাড়াতে আরও বেশি জনসংযোগের কাজে হাত লাগিয়েছে তৃণমূল।বর্ধমানে এসে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন  দফতরের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।তিনি বলেন, ফুলওয়ামা , বালাকোট দেখিয়ে একবার মানুষকে বোকা বানানো যায় ।  বারে বারে বোকা বানানো যাবেনা । সিএএ ও এনআরসি করে বিজেপি নিজের কবর নিজেরাই খুঁড়েছে । সেকারণেই সম্প্রতি এই রাজ্যে  হওয়া  তিনটি বিধানসভা আশনের উপনির্বাচনে সাফ হয়েছে ।

তিনি আরও বলেন, দিল্লির মানুষও  কাজের নিরিখে ভোট দিয়েছে । আর উন্নয়ন  কাজের জন্যই বাংলার মানুষ আসন্ন পুরসভা নির্বাচনে তৃণমূলকেই ভোট দেবে । তবে পুরসভা ভোট  কবে হবে সেই বিয়টি তিনি খোলসা করেন নি। এদিন বর্ধমানে  কাঞ্চননগরে নবনির্মিত বৃদ্ধাশ্রম ‘নবনীড়’  এর উদ্বোধন করেন পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ।

আরও পড়ুন: হাড়োয়ার স্কুলে সরস্বতী পুজো করতে চাওয়ার অপরাধে খুনের হুমকি!

পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক ফিরহাদ হাকিক এদিন রাতে  বর্ধমান ভবনে দলের  নেতাদের নিয়ে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন ।  সেই বৈঠকে জেলার দায়িত্বশীল তৃণমূল  নেতারা ছাড়াও , জেলার বিধায়ক গন , জেলাপরিষদের সভাধিপতি ও  সহ সভাধীপতি এবং জেলার পুরসভা গুলির প্রাক্তন কাউন্সিলার ও পুরপিতারা  উপস্থিত থাকেন । সেই বৈঠকেই পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে দলীয় নেতৃত্বকে মাঠে নামতে নির্দেশ দিলেন ফিরহাদ হাকিম। একই সঙ্গে জানিয়েদেন , পৌর ভোট কখন হবে  তা ঠিক করবে রাজ্য নির্বাচন কমিশন।  তবে এদিন পর্যবেক্ষকের সামনেই  লোকসভা নির্বাচনে দলের পরাজয় নিয়ে বৈঠকে উপস্থিত এক নেতা অপর নেতার বিরুদ্ধে  কার্যত বিষোদাগার উগরে দেন । যদিও ফিরহাদ হাকিম গোষ্ঠী কোন্দল ভুলে  দলের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে নির্দেশ দিয়েযান ।

Related Articles

Back to top button
Close