fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ওএনজিসি প্ল্যান্ট থেকে প্রথম উত্তোলিত তেল গেল শোধনাগারে

রুদ্র নারায়ন রায়, উত্তর ২৪ পরগনা: অশোকনগর বাসীর কাছে এক ঐতিহাসিক দিন। বাইগাছি এলাকায় ওএনজিসি নির্দিষ্ট পরীক্ষার স্থল থেকে উত্তোলিত প্রথম খনিজ তেল পাড়ি দিল হলদিয়া তৈল শোধনাগারে উদ্দেশ্যে। এদিন ট্যাংকারে করে খনিজ তেল পাঠানো হয় পরীক্ষাগারে। এই খবরে সভাবতই উচ্ছ্বসিত অশোকনগর বাসি। তবে কবে থেকে নিয়মিতভাবে এই কেন্দ্র থেকে তেল উত্তোলন করা হবে তা এখনও সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়নি।

 

২০১৮ সালের আগস্ট মাসে এই স্থল থেকে প্রথম খনিজ তেল উত্তোলন করা হয়। পরে তা পাঠানো হয় ওএনজিসি র নির্দিষ্ট পরীক্ষাগারে। জানা যায় বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে বিপুল পরিমাণ খনিজ তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাস মজুদ রয়েছে অশোকনগর কল্যাণগড় পৌর অঞ্চলের একটি বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে। তবে, ইতিমধ্যেই প্রায় ১৪ একর জমি পেতে রাজ্য সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছে ওএনজিসি। জমি চিহ্নিত করনও ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। ওএনজিসি চিহ্নিত ওই এলাকায় বেশিরভাগ জমি, রাজ্যের উদ্বাস্তু ও শ্রেণী কল্যাণ দপ্তরের হাতে। তবে জমির কিছু অংশে স্থানীয় চাষীরা বছরে একবার চাষ করেন বলে স্থানীয় মানুষের দাবী। পাশাপাশি ওই এলাকার কাছেই তৈরি হয়েছে অশোকনগরের ডাম্পিং জোন। ফলে, নির্দিষ্ট জমি চিহ্নিত করে রিপোর্ট ইতিমধ্যেই নবান্নে পাঠানো হয়েছে বলে প্রশাসনিক সূত্রে খবর।

 

সবুজ সঙ্কেত মিললেই দ্রুত পরিকাঠামোগত যে উন্নয়নের দরকার, তার কাজ শুরু করতে পারবে ওএনজিসি কর্তৃপক্ষ। ফলে হাবরা- নৈহাটি মেন রোড থেকে ওএনজিসি নির্দিষ্ট পরীক্ষা স্থল পর্যন্ত পাকা রাস্তা, বৈদ্যুতিকরণ সহ একাধিক প্রযুক্তিগত উন্নয়ন সম্ভবপর হবে। ওএনজিসি চাহিদামত জমি পাওয়া গেলেই অত্যাধুনিক মেশিন, পাম্প সহ একাধিক তেল উত্তোলনের প্রয়োজনীয় যন্ত্রাংশ এই স্থানে নিয়ে আসা হবে। যার ফলে অতি দ্রুত তেল তোলা সম্ভবপর হবে । ওএনজিসি এই প্ল্যান্ট পশ্চিমবঙ্গ তথা ভারতের মানচিত্রে অশোকনগর কে এক বিশেষ স্থান তৈরি করে দেবে বলেই আশা অশোকনগর বাসীদের।

Related Articles

Back to top button
Close