fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মর্মান্তিক, জোড়া বাঘের আক্রমণে নিহত মৎস্যজীবী, উদ্ধার মুণ্ডুহীন দেহ

 বাবলু প্রামানিক, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: জোড়া বাঘের আক্রমণে নিহত হলেন এক মৎস্যজীবী। নিহত মৎস্যজীবীর মুণ্ডুহীন দেহ উদ্ধার হয়েছে গভীর জঙ্গল থেকে। আর এই ঘটনায় যথেষ্ট চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। নিহত ওই মৎস্যজীবীর বাড়ি দক্ষিণ ২৪ পরগনার গোসাবা ব্লকের লাহিরিপুর এলাকায় ।

স্থানীয় বনদফতর সূত্রে খবর, চারজন মৎস্যজীবীর একটি দল সুন্দরবনের ঝিলা জঙ্গলের বানতলা খালে ঢুকেছিল কাঁকড়া ধরতে। রবিবার সকালে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জঙ্গলের জোয়ারের সময় ঢুকে কাঁকড়া ধরার জন্য তোড়জোড় শুরু করতেই পিছন দিক থেকে তাদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে বাঘ। নৌকা থেকে তুলে নিয়ে যায় ওই মৎস্যজীবীকে। নিহত মৎস্যজীবীর নাম সুশান্ত মন্ডল (৫২)। ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়ে অন্য তিন সঙ্গী।  বাঘের পিছনে ধাওয়া করে ও দেহ উদ্ধার করতে পারিনি তারা। কারণ প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান একটি বাঘ যখন দেহ মুখে করে টেনে নিয়ে চলে যাচ্ছে তখন আর একটি বাঘ তাদের উপর হামলা চালানোর জন্য জঙ্গল থেকে বেরিয়ে আসে। জোড়া বাঘের আক্রমন বুঝেই ওই তিনজন মৎস্যজীবীর দেহ উদ্ধারের পরিকল্পনা স্থগিত রেখে সোজা নৌকায় চলে আসে।

নিহত মৎস্যজীবীর সঙ্গে ছিলেন ধরণী মন্ডল, শিবপদ মন্ডল ও কমলা হাউলী । এরপর বিষয়টি এলাকায় এসে জানান ওই মৎস্যজীবীদের দলটি। এলাকা থেকে লোকজন গিয়ে যেখানে বাঘ দেহটি শিকার ধরেছিল তার থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে জঙ্গলের মধ্যে দেহটি উদ্ধার হয়। দেহটি যখন উদ্ধার করা হয় তখন দেখা যায় দেহটি মুণ্ডুহীন। বনদফতর সূত্রে খবর, মৎস্যজীবীদের দলটি কোনরকম বৈধ অনুমতি পত্র ছাড়াই সুন্দরবনের জঙ্গলে ঢুকেছিল কাঁকড়া ধরতে। আর সেখানেই ঘটেছে এই দুর্ঘটনা।

Related Articles

Back to top button
Close