fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সমুদ্রে মাছ ধরতে যেতে পারবে মৎস্যজীবীরা

বিশ্বজিৎ হালদার, কাকদ্বীপ: গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে গেলেও, এবার মেনে চলতে হবে কোভিড- ১৯ এর স্বাস্থ্যবিধি। সম্প্রতি এ বিষয়ে ডায়মন্ডহারবার মহকুমা শাসকের দফতরে প্রশাসনিক আধিকারিকদের উপস্থিতিতে একটি বৈঠকও অনুষ্ঠিত হয়।

সেই বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, ট্রলারে করে গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে গেলেও, করোনার বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। প্রত্যেক মৎস্যজীবীকে মেনে চলতে হবে সরকারি স্বাস্থ্যবিধি। সেই মতো রবিবার থেকে শুরু হয় মৎস্যজীবী দের স্বাস্থ্য পরীক্ষা। পাশাপাশি স্বাস্থ্যশিবির কাকদ্বীপ, নামখানা , ফ্রেজারগঞ্জের সমস্ত হারবার গুলিতে করা হবে বলে জনান সহ মৎস্য অধিকর্তা ডায়মন্ডহারবার জয়ন্ত বিশ্বাস।

এ বিষয়ে কাকদ্বীপ ফিশারম্যান ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক বিজন মাইতি জানান, “মৎস্য দফতর ও প্রশাসনিক আধিকারিকদের নেতৃত্বে ও প্রতিটি মৎস্য সমিতির কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এই বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে প্রতিটি মৎস্য বন্দরে ও ট্রলার ঘাটে অস্থায়ী স্বাস্থ্য পরীক্ষা শিবির খোলা হবে।

মৎস্যজীবীরা যখন ট্রলারে করে গভীর সমুদ্রে যাবেন কিংবা মাছ ধরে গভীর সমুদ্র থেকে উপকূলে ফিরে আসবেন, সেই সময় প্রত্যেক মৎস্যজীবীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে। এছাড়াও সমুদ্রে মাছ ধরতে যাওয়ার সময়, প্রত্যেক মৎস্যজীবীকে মুখে মাস্ক ও হাতে গ্লাফস পরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ট্রলারগুলিকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তবে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার বিষয়ে তিনি জানান, “একটি ট্রলারে ১৫ থেকে ১৭ জন মৎস্যজীবী থাকেন। প্রত্যেক মৎস্যজীবীকে যতটা সম্ভব দূরত্ব বজায় রেখে কাজ করার কথা বলা হয়েছে

Related Articles

Back to top button
Close