fbpx
দেশহেডলাইন

দিল্লি হিংসা মামলায় এবার গ্রেফতার উমর খালিদ, UAPA ধারায় মামলা দায়ের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: দিল্লি হিংসায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে গ্রফতার দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র উমর খলিদ। উমরের বিরুদ্ধে বেআইনি কার্যকলাপ প্রতিরোধ আইনে (UAPA) মামলা দায়ের হয়েছে। গত ফেব্রুয়ারি মাসে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসির প্রতিবাদে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল গোটা দেশ। রাজধানী দিল্লিতেও দেখা দিয়েছিল প্রতিবাদের আগুন। তার চরম পরিণতি ছিল ২৩ থেকে ২৬ ফেব্রুয়ারি উত্তর-পূর্ব দিল্লিতে দাঙ্গা। যার বলি হয়ে হয় পঞ্চাশের বেশি মানুষকে। আহত হয়েছিলেন ৪০০ জনের মতো মানুষ। এই হিংসার ঘটনায় এবার জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের প্রাক্তন সদস্য উমর খালিদকে গ্রেফতার করল দিল্লি পুলিশ। গ্রেফতারির পর তাঁকে দীর্ঘক্ষণ জেরা করে দিল্লি পুলিস। সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিটে সিপিএম নেতা সীতারাম ইয়েচুরি স্বরাজ অভিযানের নেতা যোগেন্দ্র যাদব, ভীম আর্মির প্রধান চন্দ্রশেখর, উমর খালিদ-সহ আরও কিছু নেতার নাম উল্লেখ করে বলে সূত্রে খবর। এই নিয়ে ক্ষোভে ফুঁসছেন বিরোধীরা।

দিল্লি হিংসায় উমরকে অন্যতম মূল ষড়যন্ত্রকারী হিসেবে চিহ্নিত করেছে দিল্লি পুলিশের স্পেশ্যাল সেল। বেআইনি কার্যকলাপ প্রতিরোধ আইনে (ইউএপিএ) তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। দিল্লি হিংসা মামলায় অনেক আগে থেকেই দিল্লি পুলিশের নজরে ছিলেন উমর খালিদ। শাহিনবাগে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) বিরোধী আন্দোলন চলাকালীন, সেখানে তিনি উস্কানিমূলক ভাষণ দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ। সেই নিয়ে গত ১ আগস্ট উমরকে এক দফা জেরা করে পুলিশ।

রাজধানীর পুলিশের আরও বক্তব্য, হিংসার ঘটনায় অন্যতম অভিযুক্ত আম আদমি পার্টির বহিষ্কৃত কাউন্সিলর তাহির হুসেনের সঙ্গেও প্রত্যক্ষ যোগ ছিল উমর খালিদের। হিংসাকে আরও বাড়াতে দু’জনে মিলে শলাপরামর্শ করেছিল। ইতিমধ্যে গত ৩ আগস্ট তাহির জেরায় দাঙ্গায় নিজের ভূমিকার কথা স্বীকার করেন বলে জানা গিয়েছে।

৩ আগস্ট তাকে জেরা করে দিল্লি পুলিশ। মোবাইলটিও সিজ করে। এরপর ফের রবিবার উমর খালিদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠানো হয়। রবিবার সকাল থেকে টানা ১১ ঘণ্টা জেরার পর, গভীর রাতে তাঁকে গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশের স্পেশ্যাল সেল। পুলিশের দাবি, আম আদমি পার্টির (আপ) প্রাক্তন কাউন্সিলর তাহির হুসেনের সঙ্গে মিলে দাঙ্গার ষড়যন্ত্র কষেছিলেন উমর। উল্লেখ্য, উত্তর-পূর্ব দিল্লিতে হিংসাত্মক ঘটনায় গত ৬ মার্চ প্রথম উমর খালিদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়। উস্কানিমূলক ভাষণ দেওয়ার পাশাপাশি, রাস্তায় নেমে এসে বিক্ষোভ দেখাতে দিল্লিবাসীকে উন্ধন জোগানোর দায়ে উমরের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়। যদিও, দিল্লি পুলিশের আনা অভিযোগ সেইসময় অস্বীকার করেন উমর।

আরও পড়ুন: দীর্ঘ বিরতির পর আজ থেকে শুরু হতে চলেছে সংসদের বাদল অধিবেশন

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের অধীন দিল্লি পুলিশের পক্ষ থেকে দু’দিন আগে বলা হয়, ঘটনায় ধৃত দেবাঙ্গনা কলিতা ও নাতাশা নারওয়াল নাকি জিজ্ঞাসাবাদের সময় জানিয়েছেন, জয়তী ঘোষ, অপূর্বানন্দ এবং রাহুল রায় তাঁদের মেন্টর এবং তাঁরাই নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) বিরোধী ধরনা চালিয়ে যেতে বলেছিলেন। দিল্লি পুলিশের অভিযোগ, “সিএএ বিরোধী এইসব সমাবেশে বড় বড় রাজনৈতিক নেতৃত্ব আসতেন, মানুষকে উত্তেজিত করতেন। মানুষ জড়ো করতেন।”

 

 

Related Articles

Back to top button
Close