fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিশ্ব হিন্দু পরিষদের প্রাক্তন সভাপতি মলয় মুখোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করল মালদা পুলিশ

নিজস্ব সংবাদদাতা,মালদা: বিশ্ব হিন্দু পরিষদের প্রাক্তন সভাপতি মলয় মুখোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করল মালদা থানার পুলিশ। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে আদিবাসী যুবক যুবতীদের গণবিবাহ কেন্দ্র করে যে অশান্তি হয় এই ঘটনায় তাকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসের ২ই রবিবার মালদা থানার আট মাইল এলাকায় গণ বিবাহের আয়োজন করা হয়। সেই মত জায়গার অনুমতির আবেদন করা হয় ও স্থানীয় প্রশাসনকেও জানানো হয়। ১০৮ জোড়া সামুহিক গণবিবাহের আয়োজন করা হয় বিশ্ব পরিষদের পক্ষ থেকে। সেই বিয়েতে অধিকাংশ যুবক-যুবতী আদিবাসী সমাজের বলে দাবি তোলেন বিক্ষোভকারী ঝাড়খন্ড দিশম পার্টির সদস্যরা। আর এনিয়ে শুরু হয় অশান্তি। যদিও ওইদিন প্রথম থেকেই গণবিবাহের অনুষ্ঠান শান্তিপূর্ণ ভাবেই চলেছিল। কিন্তু তার মাঝেই  বিশ্ব হিন্দু পরিষদের বিরুদ্ধে এই গণবিবাহের মাধ্যমে ধর্মান্তকরণ করার অভিযোগ তুলে বিক্ষোভ- অবরোধে সামিল হয় ঝাড়খন্ড দিশম পার্টির সদস্যরা।

ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করে। এরপর পুলিশকে লক্ষ্য করে ইঁট বৃষ্টি শুরু করে। এতে এক পুলিশ কর্মী আহত হয়। ফলে হুড়োহুড়ি শুরু হয়ে যায় বিবাহ মন্ডপে। বিবাহ মন্ডপ ভাঙচুর করা হয়। যদিও সেই সময় ঝাড়খন্ড দিশম পার্টির রাজ্য সহ-সভাপতি মোহন হাঁসদা’র অভিযোগ করেছিলেন,এই এলাকায় বেশির ভাগই আদিবাসী। হ্যান্ডবিল ও বিজ্ঞাপন ছাপিয়ে ঘোষণা করেছিল যে তারা হিন্দুত্ব রীতি অনুযায়ী বিবাহ হবে। আমরা এর প্রতিবাদ জানায়। ঘটনায় আদিবাসী সমাজ ও মানুষকে অপমান করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: শিলচরে মহালয়ার ভিড়ে লাগাম টানতে বিধিনিষেধ জারি করল জেলা প্রশাসন

পাল্টা বিশ্ব হিন্দু পরিষদের কেন্দ্রীয় সম্পাদক অচ্যুতানন্দ কর বলেছিলেন, আদিবাসী রীতি মেনেই ওই গণ বিবাহের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে বেশ কিছু যুবক সেই বিয়ে ভন্ডুল করতে হামলা চালায়। পুলিশের সামনেই হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ।এই ঘটনার নেপথ্যে শাসকদলের হাত রয়েছে। সেই সময় বিশ্ব হিন্দু পরিষদের পক্ষ থেকে মালদায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয় ছিল।  পাল্টা অভিযোগ জানায় ঝাড়খন্ড পার্টি গোটা ঘটনার তদন্ত পুলিশ শুরু করে। এরপরই বিশ্ব হিন্দু পরিষদের প্রাক্তন সভাপতি গ্রেফতারের ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। বিশুদ্ধ পরিষদের সক্রিয় সদস্য তরুণ পণ্ডিত বলেন,এটা সম্পূর্ণ একটি চক্রান্ত। আমরা আইনি পথে এর মোকাবিলা করব।

Related Articles

Back to top button
Close