fbpx
কলকাতাহেডলাইন

রায়কে চ্যালেঞ্জ ফোরাম ফর দুর্গোত্‍সবের, পুনর্বিবেচনার আবেদন হাইকোর্টে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পুজো বিভ্রাট যেন কিছুতেই কাটছে না। সোমবার হাইকোর্টের দেওয়া ঐতিহাসিক রায়ের বিরুদ্ধে মঙ্গলবারই রিট পিটিশন দাখিল করতে চলেছে ফোরাম ফর দুর্গোত্‍সব। এএবার পুজোয় দর্শক শূন্য মণ্ডপের যে নির্দেশিকা দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট সেই রায়ের পুনর্বিবেচনার আর্জি নিয়ে এবার হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ ফোরাম ফর দুর্গোৎসব। বুধবার এই মামলার শুনানি সম্ভাবনা রয়েছে হাইকোর্টের বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় ডিভিশন বেঞ্চে।

করোনা সঙ্কটকালে করোনা সংক্রমণ-বৃদ্ধির আশঙ্কায় সোমবার পুজো অনুমতি নিয়ে মামলার রায়ে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ স্পষ্ট জানিয়ে দেয়, এবার দর্শকশূন্য থাকবে রাজ্যের সব পুজো মণ্ডপ। প্রতিটি মণ্ডপ নো এন্ট্রি জোন হিসেবে গণ্য হবে। পুজোর এলাকা ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে নো-এন্ট্রি জোন হিসেবে চিহ্নিত করতে হবে। আদালতের এই নির্দেশের প্রেক্ষিতে রায়ের পুনর্বিবেচনার আর্জি নিয়ে ফের বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের বেঞ্চে আবেদন জানায় ফোরাম ফর দুর্গোৎসব। এদিনই জরুরি ভিত্তিতে মামলার শুনানির আর্জি জানানো হয় আদালতে।

আরও পড়ুন: থিমের নামে মা দুর্গার বিকৃতি! ক্ষুব্ধ হিন্দুত্ববাদীরা

হাইকোর্টের এই রায়কে স্বাগত জানিয়েছে বহু পুজো কমিটি। এর মধ্যে রয়েছে সন্তোষ মিত্র স্কোয়ার। যারা আগে থেকেই জানিয়েছিল যে পুজো করলেও দর্শকদের জন্য মণ্ডপের দরজা বন্ধ থাকবে।তবে বেশিরভাগ কমিটি অখুশি। তাই ফোরাম ফর দুর্গোত্‍সব ফের আদালতে যাচ্ছে বলে খবর।কলকাতা হাইকোর্টের রায় পুনর্বিবেচনা করতে মঙ্গলবার রিভিউ পিটিশান জমা দিতে চলেছে কলকাতার বারোয়ারি দুর্গাপুজোগুলিকে নিয়ে গঠিত ফোরাম ফর দুর্গোৎসব। ফোরাম ফর দুর্গোৎসবের তরফে এদিন মামলার আবেদন করেন আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। আদালত প্রথমে আপত্তি করলেও পরে অবশ্য মামলা দায়ের করার অনুমতি দিয়েছে। মামলার অন্য সব পক্ষকে নোটিশ করে আগামীকাল শুনানির জন্য আসতে বলা হয়েছে আদালতে। ফলে মণ্ডপে নো এন্ট্রি মামলায় আজ কোন ডেভলপমেন্ট হবার সুযোগ নেই হাইকোর্টের তরফে। এই পুনর্বিবেচনার মামলায় কি হয় এখন সেদিকেই তাকিয়ে পুজো কমিটিগুলি।

Related Articles

Back to top button
Close