fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

পাঁচ বছরে ছেলের সামনে স্ত্রীকে গণধর্ষণ স্বামী সহ ৪ বন্ধুর, সারা শরীরে দেওয়া হল সিগারেটের ছ্যাঁকা

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: এক মহিলার সঙ্গে নারকীয় ঘটনায় ফের উঠে এল কেরলের নাম। লাম্পট্য, অত্যাচার, বিশ্বাসঘাতকতা যে কতদূর পর্যন্ত পৌঁছতে পারে তার সর্বশেষ সীমা পাড় করে দিল এই ঘটনা। যে স্বামীকে বিশ্বাস করে তার সংসার সেই স্বামীই যে এই ধরনের আচরণ করতে পারেন তা ঘূণাক্ষরেও ভাবতে পারেননি স্ত্রী। কিন্তু স্বামীর প্রতি সেই ভালোবাসার দাম দিতে হল স্ত্রীকে। ঘটনা কেরলের ভারকালা জেলা। লকডাউনে ঘরবন্দি থাকার সুবাদে পরিবার নিয়ে সাগর কিনারে বেড়াতে নিয়েছিলেন স্বামী। স্ত্রী বুঝতে পারেননি স্বামীর পরিকল্পনার কথা।

নিজের পাঁচ বছরের ছেলের সামনে স্বামী ও তার চার বন্ধু হাতে গণধর্ষিতা হলে হল ওই গৃহবধূকে। এমনকী এই নারকীয় কাণ্ড ঘটানোর সময় উল্লাস আর পৈশাচিক মজায় এতটাই মেতেছিলেন তার স্বামী যে নিজের স্ত্রী সারা গায়ে জ্বলন্ত সিগারেটে ছ্যাঁকা দিতেও পিছনা হয়নি সে। সেই উল্লাসে সামিল হয়েছিল তার বন্ধুরাও। নৃশংস এই ঘটনায় পুলিশ তো শিউরে উঠছেন, নড়েচড়ে বসছে মহিলা কমিশনও।

এদিন সকালে ভারকালা শহরে এক মহিলাকে প্রায় বিবস্ত্র অবস্থায় রাস্তায় উদভ্রান্তের মতো দৌড়াতে দেখে তাঁকে আটকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন এক যুবক। তখনই ওই মহিলা অভিযোগ করেন যে তাঁর স্বামী ও তার চার বন্ধু মিলে রাতভর তাঁকে গণধর্ষণ করেছে। সেই সঙ্গে গোটা ঘটনা ভিডিও করা হয়েছে। মজা পেতে তাঁর সারা শরীরে সিগারেটের ছাঁকাও দিয়েছে। মুখ খুললে ধর্ষণের ওই ভিডিও তারা ছেড়ে দেবে সোশ্যাল মিডিয়াতে বলে শাসিয়ে আছে তাকে। সকালে কোনরকমে অভিযুক্তদের চোখে ধুলো দিয়ে সেখান থেকে পালিয়ে আসেন ওই মহিলা।

তিনি জানিয়েছেন, শুক্রবার সকালে তাঁর স্বামী তাঁকে আর তাঁদের পাঁচ বছরের ছেলেকে নিয়ে ভারকালা ঘুরতে নিয়ে আসে। সেখানেই গতকাল রাতের দিকে তাঁদের হোটেলে স্বামীর চার বন্ধু আসে। শুরু হয় মদ্যপানের আসর। তাঁকেও জোর করে মদ খাওয়ানো হয়। তারপরেই শুরু হয় অত্যাচার। ঘটনার জেরে ওই যুবকই মহিলাকে পুলিশের কাছে নিয়ে যায় ও তাঁকে অভিযোগ দায়ের করতে সাহায্য করে। নির্দিষ্ট ওই হোটেলে হানা দিয়ে ওই মহিলার স্বামী সহ পাঁচজন অভিযুক্তকেই গ্রেফতার করা হয়। উদ্ধার করা হয় ওই দম্পতির পাঁচ বছরের ছেলেটিকেও।

পাঁচ অভিযুক্তের বিরুদ্ধে অপহরণ, যৌন নিগ্রহ ও গণধর্ষণের মামলা রুজু করা হয়েছে। এছাড়াও নাবালকের সামনে এই অত্যাচার করায় আলাদা ধারায় মামলা দায়ের হয়েছে। তৎপর কেরলের মহিলা কমিশন।

Related Articles

Back to top button
Close