fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিনামূল্যে টেলিকনফারেন্সিং, করোনা চিকিৎসা, মানবিক উদ্যোগ ৪ চিকিৎসকের

শান্তনু চট্টোপাধ্যায়, রায়গঞ্জ:  এবার টেলি-কনফারেন্সের মাধ্যমে মৃদু উপসর্গ যুক্ত বা হোম আইসোলেশনে থাকা রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা পরামর্শ দানে এগিয়ে এলেন রায়গঞ্জের চারজন বিশিষ্ট চিকিৎসক। চিকিৎসক দের এই মানবিক উদ্যোগ কে স্বাগত জানিয়েছেন সাধারণ মানুষ।

উল্লেখ্য উত্তর দিনাজপুর জেলার পাশাপাশি রায়গঞ্জ শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে বাড়ছে কোভিড রোগীর সংখ্যা। আক্রান্তদের অনেকেই মৃদু উপসর্গ যুক্ত। স্বাস্থদপ্তরের নির্দেশে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন তারা। হোম আইসোলেশনে থাকলেও অনেকেই বিভিন্ন সময়ে শারীরিক ও মানসিক সমস্যায় ভুগছেন।

ইতিমধ্যেই শহরের অনেক চিকিৎসক করোনা সংক্রমনের কারনে চেম্বার বন্ধ করে দিয়েছেন। ভয়ে সাধারন মানুষ হাসপাতালে যেতে চাইছেন না। ফলে সমস্যা জটিল আকার ধারন করেছে। এই পরিস্থিতিতে হোম আইসোলেশনে থাকা কোভিড রোগীদের নিয়ে উদ্বেগে রয়েছেন পরিবারের সদস্যরা।এবারে মানুষের এই সার্বিক সমস্যায় পাশে দাঁড়ানোর উদ্যোগ নিলেন রায়গঞ্জ শহরের চার বিশিষ্ট চিকিৎসক জয়ন্ত ভট্টাচার্য, সুদেব সাহা, দেবব্রত রায় ও মীর রাশেদ আলী। কোভিড আক্রান্ত রোগীরা নির্দিষ্ট সময়ে ফোনে এই চিকিৎসক দের সঙ্গে কথা বলতে পারবেন। পাবেন প্রয়োজনীয় চিকিৎসাজনিত পরামর্শ। রোগীদের এই টেলিপরামর্শ সম্পূর্ণ বিনামূল্যে দিচ্ছেন এই চিকিৎসকেরা। ডাঃ সুদেব সাহা বলেন,” করোনা আক্রান্তদের প্রায় আশি শতাংশ উপসর্গ হীন বা মৃদু উপসর্গ যুক্ত। এরা হোম আইসোলেশনে থাকছেন।

এই রোগীদের কাউন্সেলিং,উপসর্গ বুঝে পরামর্শ দান,তাদের আতংক কাটানোর জন্যই কয়েকজন চিকিৎসক মিলে এই উদ্যোগ নিয়েছি। পাশাপাশি কোভিড আক্রান্তদের সঙ্গে যাতে মানবিক ব্যবহার করা হয় সেবিষয়ে ও সামাজিক সচেতনতা বাড়ানোর চেষ্টা চালাচ্ছি আমরা। অন্যান্য চিকিৎসকেরা কী বলছেন এবিষয়ে চলুন শুনে নেবো। জয়ন্তবাবু বলেন,”

হাসপাতালগুলোর উপর ভীষন চাপ বাড়ছে। আমরা সরকারী পরিষেবার সহযোগী একটা সিস্টেম গড়ে তুলতে চাইছি। তাতে সাধারন মানুষ উপকৃত হবেন। রোগীরা ভরসা পাবেন। ” একই কথা জানিয়েছেন অপর দুই চিকিৎসক দেবব্রত রায় ও এম আর আলী।

Related Articles

Back to top button
Close