fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

অফিসের সামনে আর্বজনা ফেলে বিক্ষোভের সামিল সাফাই কর্মীরা

 মিলন পণ্ডা, দিঘা ,পূর্ব মেদিনীপুর: অফিসের সামনে আর্বজনা ফেলে অভিনব উপায়ের প্রতিবাদ জানালো সৈকত নগরী দিঘার সাফাই কর্মীরা। কালী পুজার দিন সকালে দিঘা শংকরপুর উন্নয়ন পর্ষদের অফিসের সামনে আবর্জনা ফেলে বিক্ষোভ দেখালো এই পর্ষদের অধীনে কর্মরত অস্থায়ী সাফাই কর্মীরা। শনিবার সকালে এই ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায় পূর্ব মেদিনীপুর জেলার সৈকত নগরী দিঘাতে। অভিনব এই আন্দোলনকারীরা জানিয়েছেন সৈকত শহরকে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে দিঘা শংকরপুর উন্নয়ন পর্ষদের অধীনে তারা দীর্ঘদিন ধরে অস্থায়ী সাফাই কর্মী কাজে যুক্ত আছেন। সম্প্রতি উন্নয়ন পর্ষদ একটি ঠিকাদারি সংস্থাকে সৈকত শহরের সাফাইয়ের কাজে নিযুক্ত করেছে।

অস্থায়ী কর্মীদের আশঙ্খা ওই সংস্থা দিঘা সাফাইয়েরর দায়িত্ব নিলেই তাদের কাজ চলে যেতে পারে। এর প্রতিবাদে শুক্রবার সকালে দিঘা শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদ এর গেটের সামনে তারা বিক্ষোভ দেখান।পরে পর্ষদ অফিসে স্মারকলিপি দেন।এর পরেও তাঁদের কাজের নিশ্চয়তা সম্প্ররকে কোন আশ্বাস না পেয়ে শনিবার আরও বড় আন্দোলনে নামলো। এদিন সকালে পর্ষদের গেটের সামনে আবর্জনা ফেলে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন সাফাই কর্মীরা।

জানা গেছে, গত প্রায় ১০ – ১৫ বছর ধরে ১২৬ জন অস্থায়ী সাফাই কর্মী নিযুক্ত রয়েছে দিঘা শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদ অফিসে। কাজের নিশ্চয়তা নেই বলে সাফাই কর্মীরা। আন্দোলনকারীদের দাবি সঠিক নয় বলে রামনগরে পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি নিতাই চরণ সার জানিয়েছেন। তিনি দাবি করেছেন কারুর কাজ যাওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই কিন্তু কেউ বা কারা সাফাই কর্মীদের ভুল বুঝিয়ে সৈকত নগরী দিঘার পরিকল্পিত ভাবে উত্তেজনা তৈরীর চেষ্টা করছে।

Related Articles

Back to top button
Close