fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

অবশেষে পাকড়াও মেদিনীপুর সেন্ট্রাল জেল থেকে পলাতক আসামির, অপরজনের খোঁজে চলছে তল্লাশি

তারক হরি, পশ্চিম মেদিনীপুর: মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার থেকে পলাতক যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত এক আসামীকে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বিজপুর থেকে মঙ্গলবার পুলিশ গ্রেফতার করেছে। ওই আসামির অপর সাগরেদ এর খোঁজেও পুলিশ জোর তল্লাশি চালাচ্ছে।

প্রসঙ্গত সোমবার সন্ধ্যা নাগাদ এই মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার থেকে পালিয়ে যায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী, মিঠুন দাস(৩৫), এবং মনোজিৎ বিশ্বাস ওরফে রাজু (৩১)। দুজনেই খুনের মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত বন্দি ছিল। সোমবার সন্ধ্যের আগে সংশোধনাগারের উত্তর দিকের পাঁচিল টপকে এই দুই আসামির পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় রীতিমতো তোলপাড় শুরু হয়েছিল শহরে। ঘটনার পরই নড়েচড়ে বসে জেলা পুলিশ প্রশাসন। সারা মেদিনীপুর শহর জুড়ে শুরু করে পুলিশ নাকা চেকিং। এবং জেলার সমস্ত থানা গুলিকে সজাগ এর  সাথে সাথেই কলকাতার প্রায় প্রতিটি থানা সহ উল্টোডাঙ্গা ও বারাসাতের থানা গুলিকেও এলার্ট করে দেয়া হয়। অবশেষে ২৪ ঘন্টারও একটু বেশি সময় পরে এলো সাফল্য! মনোজিৎ বিশ্বাস ওরফে রাজুকে উত্তর ২৪ পরগনার বিজপুর থেকে পাকড়াও করল পুলিশ।

আরও পড়ুন: দুয়ারে সরকারের অজানা কথা, কাঁকসায় সরকারি সহায়তার ফর্ম নিতে হেঁটেই পঞ্চায়েতে ষাটোর্দ্ধ বৃদ্ধ বাবুলাল

এদিকে পাঁচিল টপকে যাওয়ার ঘটনায় তদন্তে নেমে কোতোয়ালি থানার পুলিশ ও কারারক্ষী বাহিনী একটি ১৮ ফুটের আঁকসি উদ্ধার করে কোতোয়ালি থানায় নিয়ে আসে। এই ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে কড়া নিরাপত্তার মধ্যে জেলের ভিতর এত বড় আঁকসি সবার নজর এড়িয়ে কিভাবে তৈরি হলো? এই ঘটনায় সংশোধনাগারের চিপ কন্ট্রোলার ও জেলার সহ তিন জনকে সাসপেন্ড করেছে কারাদপ্তর। এবং দায়িত্বে থাকা ৩ কারারক্ষী কেও শোকজ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে কারা দপ্তর। আর এসবের মধ্যেই বীজপুর থানার পুলিশ কাঁচরাপাড়া চারপোল এলাকা থেকে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে অবশেষে অভিযুক্ত আসামি মনোজিৎ বিশ্বাস ওরফে রাজু কে গেফতার করল পুলিশ। ইতিমধ্যেই অপর অভিযুক্ত মিঠুন দাস (৩৫) কে হাতে পাওয়ার জন্য জোর তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

Related Articles

Back to top button
Close